আজ সোমবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ৩:৪৪

add

ঘুমন্ত দুজনকে চিরঘুমে পাঠাল আগুন

প্রবাসীর কথা ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০১৮

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : পলাশ ১০ বছর ধরে মিষ্টির দোকানটিতে কাজ করতেন। স্থানীয় কলেজছাত্র বিশ্বজিৎ পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে খণ্ডকালীন সময়ে কাজ করতেন ওই দোকানে। দরিদ্র ছেলেটি সময়ে–সময়ে কাজ করে টাকা জমিয়ে কলেজের খরচ চালাতেন। গতকাল বৃহস্পতিবার গভীর রাতের এক আগুনে ভস্ম এ দুজনের স্বপ্ন। ওই দোকানে ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে পুড়ে মারা যান তাঁরা। ওই দোকান থেকে তাঁদের পুড়ে যাওয়া লাশ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে শরীয়তপুর জেলা শহরের পালং বাজারে। বাজারের ১১টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান পুড়েছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা প্রশাসন, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী ও স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা গেছে, শহরের সবচেয়ে বড় বাজার পালং বাজারে গতকাল দিবাগত রাত তিনটার দিকে আগুন লাগার এই ঘটনা ঘটে। প্রায় সোয়া তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। নিহত দুজন ওই বাজারের নারায়ণ ঘোষের মিষ্টির দোকান গোপাল সুইটসের কর্মচারী ছিলেন। রাতে তাঁরা দোকানেই ঘুমাতেন।

পলাশ বাড়ৈ (২৫) মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার কমলাপুর গ্রামের রূপচাঁদ বাড়ৈর ছেলে। আর বিশ্বজিৎ সরকার (২০) একই গ্রামের রবীন্দ্রনাথ সরকারের ছেলে। তাঁদের মরদেহ শরীয়তপুর জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজনের তথ্যমতে, দরিদ্র পরিবারের ছেলে বিশ্বজিৎ স্থানীয় একটি কলেজের ছাত্র ছিলেন। কলেজ ছুটি বা পড়াশোনার চাপ কম থাকলে তিনি সময়ে–সময়ে এসে দোকানটিতে কাজ করতেন। কিছুদিন কাজ করার পর যা টাকা পেতেন, তা নিয়ে বাড়ি চলে যেতেন। সেই টাকায় পড়াশোনার খরচ চালাতেন। সবশেষ তিনি এবার মাত্র ১৫ দিন আগে দোকানটিতে কাজে যোগ দিয়েছিলেন।

পালং বাজারে আগুন লাগা ও দুজনের মৃত্যুর তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মাহাবুর রহমান শেখ। তিনি বলেন, ১১টি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করা হচ্ছে। মৃত দুজনের পরিবার ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে।

আগুন লাগার পর আজ শুক্রবার ভোররাত পৌনে চারটার দিকে শরীয়তপুর জেলা শহর, মাদারীপুর, ডামুড্যা ও গোসাইরহাট ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। সোয়া তিন ঘণ্টার চেষ্টায় সকাল সাতটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুন লাগার কারণ এখনো বলতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস। বাজারের ব্যবসায়ীদের ধারণা, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগতে পারে। এতে ১০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তাঁদের দাবি। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের বাইরে বাজার লাগোয়া তিনজনের বসতবাড়ি পুড়ে গেছে।

পালং বাজারের কাঁসা পিতলের ব্যবসায়ী রণজিৎ কংশ বণিক বলেন, তাঁর কারখানা, দোকান ও দোকানের পাশে বাড়ি পুড়ে গেছে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে হইচই শুনে তিনি ঘুম ভেঙে দেখতে পান, চারদিকে আগুনের লেলিহান শিখা। তিনি পরিবার নিয়ে নিরাপদে বেরিয়ে আসতে পারলেও তাঁর বাড়ি, দোকান ও কারখানা পুড়ে গেছে। তাঁর প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশে যাত্রা করলো সংবাদ সংস্থা ‘A24’
আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন
সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী মালয়েশিয়া প্রবাসী ছাত্র নেতা মোঃ রবিউল ইসলামের মনোনয়ন পত্র দাখিল
মালয়েশিয়া প্রবাসীদের দুঃখ গাথা জীবন
ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রলীগের অবস্থান
বি এস ইউ এম-এর বার্ষিক কর্মপরিকল্পনা ও বৈশাখী উৎসব
মালয়েশিয়ায় হঠাৎ পুলিশের ফাঁদ : ৩২০ প্রবাসী আটক
আউট সোর্সিংয়ের নামে ডিজিটাল প্রতারণা, ২০০ কোটির মালিক পলাশ
মালয়েশিয়া প্রফেসর ড. বদরুল হুদা খানকে সংবর্ধনা
সুখ পেতে বহুতল বাড়ি লাগে না
মালয়েশিয়ার কেএলসিসিতে ঘুরতে এসে ৯২ বাংলাদেশী গ্রেফতার!
মালয়েশিয়াতে শরীয়তপুর প্রবাসীদের নৌকায় ভোট চেয়ে প্রচারনা
বাংলাদেশ কমিউনিটি প্রেসক্লাব মালয়েশিয়ার পূর্ণাঙ্গ কমিটি
মালয়েশিয়ার নতুন সুলতান কে এই টেঙ্কু আবদুল্লাহ
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মালয়েশিয়া শাখার উদ্যেগে নির্বাচন প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশি শ্রমিক নির্যাতন : ডব্লিউআরপির বিরুদ্ধে মামলা করবে মালয় সরকার
বিয়ে-বিচ্ছেদের খবরে ক্ষুব্ধ নুসরাত জাহান
মালয়েশিয়ায় আরাফাত রহমান কোকোর ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
শেখ হাসিনাকে ৫ দেশের রাষ্ট্র-সরকার প্রধানের অভিনন্দন
ছোট শিশুদের গরুর দুধ খাওয়ানো কি ঠিক?

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার