আজ সোমবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ৪:১৩

add

ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ে ভোগান্তি চরমে

প্রবাসীর কথা ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ৯, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদকে সামনে রেখে তৃতীয় দিনের মতো রাজধানী ছাড়ছে ঘরমুখো মানুষ। কিন্তু বৈরি আবহাওয়া আর ট্রেন দেরিতে ছাড়ায় ঘরে ফেরা মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তারপরে দুর্ভোগ মাথায় নিয়ে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছেন মানুষ।

সকাল থেকে রাজধানীর কমলাপুর রেল স্টেশনে দেখা গেছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। অতিরিক্ত চাপ সামলাতে গতকাল থেকে রেলে যুক্ত হয়েছে তিনটি বিশেষ ট্রেন।

ট্রেনে করে যারা বাড়ি যাবেন তাদের অনেকে নির্ধারিত সময়ের অনেক আগেই কমলাপুর স্টেশনে উপস্থিত হন। ভোর থেকে ঘরমুখো মানুষের পদচারণায় কমলাপুর স্টেশনে মুখরিত হয়ে উঠে। কিন্তু ট্রেনে দেরিতে আসায় ভোগান্তিতে পড়েছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে যেতে চাওয়া যাত্রীরা।

অধিকাংশ ট্রেন কমলাপুর ছাড়তে বিলম্ব হবে বলে স্টেশন থেকে জানা গেছে। এদিকে গতকাল থেকে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি হচ্ছে। আজও ঢাকার আকাশ মেঘলা আছে। ফলে বাড়ি ফেরা নিয়ে সীমাহীন ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের।

জানা গেছে, রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস কমলাপুর ছেড়ে যাওয়ার নির্ধারিত সময় ছিল সকাল ছয়টা। কিন্তু সকাল সাড়ে নয়টা পর্যন্ত ট্রেনটি কমলাপুর পৌঁছায়নি। ১১টার পর এটি কমলাপুর এসে পৌঁছাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কমলাপুরে আনুষাঙ্গিক প্রয়োজনীয়তা সেরে দুপুর ১২টার পর ট্রেনটি ছেড়ে যেতে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। ফলে যাত্রীদের দীর্ঘ ছয় ঘণ্টার মতো স্টেশনে অপেক্ষা করতে হবে।

শুধু ধূমকেতু এক্সপ্রেসই নয়, এদিন প্রায় সব ট্রেনই ছাড়তে বিলম্ব করছে। রংপুর এক্সপ্রেস, নীলসাগর এক্সপ্রেস, সুন্দরবন এক্সপ্রেসসহ বিভিন্ন গন্তব্যে চলাচলকারী ট্রেনও শিডিউল বিপর্যয় দেখা দিয়েছে।

খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ছেড়ে যাওয়ার সময় সকাল ছয়টা ২০ মিনিট। কিন্তু ট্রেনটি সকাল পৌনে সাতটা পর্যন্ত কমলাপুর ছেড়ে যায়নি। ফলে ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষ স্টেশনে বসেই অপেক্ষার প্রহর গুণছেন। এতে ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি বেড়েছে। স্টেশনে দীর্ঘ অপেক্ষায় অনেকে ক্লান্ত।

যাত্রীরা বলছেন, ট্রেনের বিলম্ব এখন স্বাভাবিক নিয়মে পরিণত হয়েছে। এর অবসান দরকার। এতে মানুষের দুর্ভোগ অনেক।

তবে রেল কর্মকর্তারা বলছেন, ঈদযাত্রায় প্রচুর যাত্রীর চাপ থাকায় ট্রেনের গতি যেমন কম থাকে, তেমনি প্রতি স্টেশনে যাত্রী ওঠা-নামা করতে অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি লাগছে। এজন্য মূলত শিডিউল বিপর্যয় দেখা দেয়।

কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার আমিনুল হক বলেন, ঈদে অতিরিক্ত যাত্রীর কারণে গতি কম ও স্টেশনে যাত্রী বেশি থাকায় যাত্রী ওঠা-নামা করতে সময় বেশি লাগে। এজন্য কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। ট্রেনের যাত্রা যেন বিলম্বে না হয় সেজন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।

Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশে যাত্রা করলো সংবাদ সংস্থা ‘A24’
আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন
সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী মালয়েশিয়া প্রবাসী ছাত্র নেতা মোঃ রবিউল ইসলামের মনোনয়ন পত্র দাখিল
মালয়েশিয়া প্রবাসীদের দুঃখ গাথা জীবন
ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রলীগের অবস্থান
বি এস ইউ এম-এর বার্ষিক কর্মপরিকল্পনা ও বৈশাখী উৎসব
মালয়েশিয়ায় হঠাৎ পুলিশের ফাঁদ : ৩২০ প্রবাসী আটক
আউট সোর্সিংয়ের নামে ডিজিটাল প্রতারণা, ২০০ কোটির মালিক পলাশ
মালয়েশিয়া প্রফেসর ড. বদরুল হুদা খানকে সংবর্ধনা
সুখ পেতে বহুতল বাড়ি লাগে না
মালয়েশিয়ার কেএলসিসিতে ঘুরতে এসে ৯২ বাংলাদেশী গ্রেফতার!
মালয়েশিয়াতে শরীয়তপুর প্রবাসীদের নৌকায় ভোট চেয়ে প্রচারনা
বাংলাদেশ কমিউনিটি প্রেসক্লাব মালয়েশিয়ার পূর্ণাঙ্গ কমিটি
মালয়েশিয়ার নতুন সুলতান কে এই টেঙ্কু আবদুল্লাহ
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মালয়েশিয়া শাখার উদ্যেগে নির্বাচন প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশি শ্রমিক নির্যাতন : ডব্লিউআরপির বিরুদ্ধে মামলা করবে মালয় সরকার
বিয়ে-বিচ্ছেদের খবরে ক্ষুব্ধ নুসরাত জাহান
মালয়েশিয়ায় আরাফাত রহমান কোকোর ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
শেখ হাসিনাকে ৫ দেশের রাষ্ট্র-সরকার প্রধানের অভিনন্দন
ছোট শিশুদের গরুর দুধ খাওয়ানো কি ঠিক?

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার