আজ সোমবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ রাত ৪:২৮

add

শান্তি চান রাজনীতিকেরা

প্রবাসীর কথা ডেস্ক
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব রাজনৈতিক দল অংশ নেওয়ার বিষয়টি গর্বের ও খুশির। এর কারণে গণতন্ত্র শক্ত ভিতের ওপর দাঁড়াবে এবং শান্তি আসবে। এ ছাড়া একটি স্বাধীন-সার্বভৌম দেশে শান্তির মানদণ্ড হলো পুরোদমে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করা। এ জন্য ভোটকেন্দ্র ও রাজনীতিতে শান্তি চাই।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থা ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল আয়োজিত ‘শান্তিতে বিজয়’ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে রাজনীতিবিদেরা এসব কথা বলেন। এ সময় শান্তির পক্ষে অঙ্গীকার করেন দেশের প্রধান দলগুলোর শীর্ষ নেতারা। পাশাপাশি আগামী নির্বাচনে নিজ নিজ দলের পক্ষে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তাঁরা।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন, এবার সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে, সেটা গর্বের ও খুশির খবর। সবাই মিলে আগামী নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে হবে। গণতন্ত্রকে মজবুত ভিত্তির ওপর দাঁড় করাতে হবে। কেননা গণতান্ত্রিক রাজনীতির লড়াই আর শান্তি প্রতিষ্ঠার লড়াইকে আলাদা করা যাবে না।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান বলেন, শুধু একটি বা দু’টি দল নয়, নির্বাচন সুষ্ঠু রাখতে সব দলকেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। আমরা কবরে গিয়ে নয়, বেঁচে থাকতেই শান্তি চাই। সব সময় শান্তি চাই। ভোটকেন্দ্রে শান্তি চাই, রাজনীতিতে শান্তি চাই। তিনি বলেন, এটা আমাদের জন্য দুর্ভাগ্য যে, দেশ এখন দুটি রাজনৈতিক ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে। আমাদের সামনে নতুন যে সমস্যা, জাতীয় নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করা, তার জন্য আমাদের সবার একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

বিএনপির অপর স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, একটি স্বাধীন-সার্বভৌম দেশে শান্তির মানদণ্ড আছে। সেটা হলো পুরোদমে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করা। এসব নিশ্চিত করতে হবে। সবাই মিলে দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠার কাজ করতে হবে।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু বলেন, দেশে গণতান্ত্রিক রীতিতে সব দল নির্বাচনে অংশ নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। এবার সেটা হচ্ছে। আশা করি, প্রতিটি দল যার যার জায়গা থেকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখবে। নেতা-কর্মীদেরও সে রকম নির্দেশনা দেবে।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, বিএনপির সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক রুমিন ফারহানাসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ৩৯ জন রাজনীতিবিদকে পুরস্কার দেয় ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল।

Print Friendly, PDF & Email
বাংলাদেশে যাত্রা করলো সংবাদ সংস্থা ‘A24’
আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন
সর্বকনিষ্ঠ প্রার্থী মালয়েশিয়া প্রবাসী ছাত্র নেতা মোঃ রবিউল ইসলামের মনোনয়ন পত্র দাখিল
মালয়েশিয়া প্রবাসীদের দুঃখ গাথা জীবন
ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রলীগের অবস্থান
বি এস ইউ এম-এর বার্ষিক কর্মপরিকল্পনা ও বৈশাখী উৎসব
মালয়েশিয়ায় হঠাৎ পুলিশের ফাঁদ : ৩২০ প্রবাসী আটক
আউট সোর্সিংয়ের নামে ডিজিটাল প্রতারণা, ২০০ কোটির মালিক পলাশ
মালয়েশিয়া প্রফেসর ড. বদরুল হুদা খানকে সংবর্ধনা
সুখ পেতে বহুতল বাড়ি লাগে না
মালয়েশিয়ার কেএলসিসিতে ঘুরতে এসে ৯২ বাংলাদেশী গ্রেফতার!
মালয়েশিয়াতে শরীয়তপুর প্রবাসীদের নৌকায় ভোট চেয়ে প্রচারনা
বাংলাদেশ কমিউনিটি প্রেসক্লাব মালয়েশিয়ার পূর্ণাঙ্গ কমিটি
মালয়েশিয়ার নতুন সুলতান কে এই টেঙ্কু আবদুল্লাহ
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মালয়েশিয়া শাখার উদ্যেগে নির্বাচন প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত
বাংলাদেশি শ্রমিক নির্যাতন : ডব্লিউআরপির বিরুদ্ধে মামলা করবে মালয় সরকার
বিয়ে-বিচ্ছেদের খবরে ক্ষুব্ধ নুসরাত জাহান
মালয়েশিয়ায় আরাফাত রহমান কোকোর ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত
শেখ হাসিনাকে ৫ দেশের রাষ্ট্র-সরকার প্রধানের অভিনন্দন
ছোট শিশুদের গরুর দুধ খাওয়ানো কি ঠিক?

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
প্রয়োজনীয় নাম্বার