Dhaka , Saturday, 4 February 2023

মিয়ানমারের কারাগারে দাঙ্গা, পালিয়েছে ৭০ বন্দী

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 07:59:15 am, Sunday, 8 January 2023
  • 16 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের পশ্চিমে ইয়াঙ্গুনের একটি কারাগারে দাঙ্গা হয়েছে। এতে এক বন্দী নিহতসহ ৬০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে। শনিবার মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এই তথ্য জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে কারারক্ষীরা একজন বন্দীর কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন জব্দ করে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এরপর পাথেইনের কারাগারে দাঙ্গা শুরু হয়। শুক্রবার সকালে প্রায় ৭০ জন বন্দী তাদের সেল থেকে পালিয়ে যান।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, বন্দীরা নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর লাঠি, ইট এবং সিমেন্টের টুকরো দিয়ে আাক্রমণ করে। কর্তৃপক্ষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে কিন্তু সমঝোতা প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। এরপর তারা বলপ্রয়োগের আশ্রয় নেয়।
জান্তা বলেছে, সংঘর্ষে একজন বন্দী নিহত, দুই পুলিশ ও নয়জন প্রহরীসহ ৬৩ বন্দী আহত হয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিহত বন্দীকে রাজনৈতিক বন্দী হিসেবে বর্ণনা করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরুর কথা জানিয়েছে জান্তা।

২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এ কারণে দেশটিতে দেখা দেয় রাজনৈতিক সংকট ও জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ। এর পর থেকে মিয়ানমারজুড়ে বিক্ষোভ দমনের নামে চলছে জান্তার দমন-পীড়ন। প্রাণ গেছে হাজারের বেশি মানুষের। জান্তার হাতে বন্দী আছেন দেশটির গণতন্ত্রকামী নেত্রী অং সান সু চিসহ অনেক রাজনীতিক।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

মিয়ানমারের কারাগারে দাঙ্গা, পালিয়েছে ৭০ বন্দী

আপডেট টাইম : 07:59:15 am, Sunday, 8 January 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের পশ্চিমে ইয়াঙ্গুনের একটি কারাগারে দাঙ্গা হয়েছে। এতে এক বন্দী নিহতসহ ৬০ জনেরও বেশি আহত হয়েছে। শনিবার মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এই তথ্য জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে কারারক্ষীরা একজন বন্দীর কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন জব্দ করে। তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এরপর পাথেইনের কারাগারে দাঙ্গা শুরু হয়। শুক্রবার সকালে প্রায় ৭০ জন বন্দী তাদের সেল থেকে পালিয়ে যান।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, বন্দীরা নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর লাঠি, ইট এবং সিমেন্টের টুকরো দিয়ে আাক্রমণ করে। কর্তৃপক্ষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে কিন্তু সমঝোতা প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। এরপর তারা বলপ্রয়োগের আশ্রয় নেয়।
জান্তা বলেছে, সংঘর্ষে একজন বন্দী নিহত, দুই পুলিশ ও নয়জন প্রহরীসহ ৬৩ বন্দী আহত হয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিহত বন্দীকে রাজনৈতিক বন্দী হিসেবে বর্ণনা করেছে। ঘটনার তদন্ত শুরুর কথা জানিয়েছে জান্তা।

২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সরকারকে উৎখাত করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এ কারণে দেশটিতে দেখা দেয় রাজনৈতিক সংকট ও জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ। এর পর থেকে মিয়ানমারজুড়ে বিক্ষোভ দমনের নামে চলছে জান্তার দমন-পীড়ন। প্রাণ গেছে হাজারের বেশি মানুষের। জান্তার হাতে বন্দী আছেন দেশটির গণতন্ত্রকামী নেত্রী অং সান সু চিসহ অনেক রাজনীতিক।