Dhaka , Sunday, 29 January 2023

৫৭ যুদ্ধবিমান নিয়ে মহড়া, প্রতিক্রিয়া তাইওয়ানের

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 02:23:51 pm, Monday, 9 January 2023
  • 11 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তাইওয়ান ঘিরে একমাসের কম সময়ে দ্বিতীয়বার মহড়া চালিয়েছে চীন। তাইওয়ান এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে-দ্বীপের চারপাশে ৫৭টি চীনা বিমান এবং চারটি নৌবাহিনীর জাহাজ শনাক্ত করেছে তারা। যার মধ্যে ২৮টি বিমান তাইওয়ানের বিমান প্রতিরক্ষা অঞ্চলে উড্ডয়ন করেছিল।

মন্ত্রণালয় বলেছে, ২৮টি বিমানের কয়েকটি তাইওয়ান প্রণালীর মধ্যরেখা অতিক্রম করে। এর আগে গত মাসের শেষের দিকে চীনের সামরিক বাহিনীর অনুরূপ মহড়ার সময় ৪৩টি চীনা বিমান মধ্যরেখা অতিক্রম করেছিল।

চীনের প্রেসিডেন্ট কার্যালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, তাইওয়ানের স্পষ্ট অবস্থান হলো- চীনের সঙ্গে বিরোধ বাড়াবে না। একইসঙ্গে নিজেদের সার্বভৌমত্ব এবং নিরাপত্তা দৃঢ়ভাবে রক্ষা করবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, তাইওয়ান প্রণালী এবং আশপাশের এলাকার পরিস্থিতির ওপর দেশের সামরিক বাহিনী গভীরভাবে নজর রাখে এবং শান্তভাবে সেসব কর্মকাণ্ডের প্রতিক্রিয়া জানায়। সুতরাং জনগণ আশ্বস্ত থাকতে পারে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, তাইওয়ান প্রণালী এবং এই অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষা করা তাইওয়ান ও চীন উভয়েরই দায়িত্ব।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

৫৭ যুদ্ধবিমান নিয়ে মহড়া, প্রতিক্রিয়া তাইওয়ানের

আপডেট টাইম : 02:23:51 pm, Monday, 9 January 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তাইওয়ান ঘিরে একমাসের কম সময়ে দ্বিতীয়বার মহড়া চালিয়েছে চীন। তাইওয়ান এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে-দ্বীপের চারপাশে ৫৭টি চীনা বিমান এবং চারটি নৌবাহিনীর জাহাজ শনাক্ত করেছে তারা। যার মধ্যে ২৮টি বিমান তাইওয়ানের বিমান প্রতিরক্ষা অঞ্চলে উড্ডয়ন করেছিল।

মন্ত্রণালয় বলেছে, ২৮টি বিমানের কয়েকটি তাইওয়ান প্রণালীর মধ্যরেখা অতিক্রম করে। এর আগে গত মাসের শেষের দিকে চীনের সামরিক বাহিনীর অনুরূপ মহড়ার সময় ৪৩টি চীনা বিমান মধ্যরেখা অতিক্রম করেছিল।

চীনের প্রেসিডেন্ট কার্যালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, তাইওয়ানের স্পষ্ট অবস্থান হলো- চীনের সঙ্গে বিরোধ বাড়াবে না। একইসঙ্গে নিজেদের সার্বভৌমত্ব এবং নিরাপত্তা দৃঢ়ভাবে রক্ষা করবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, তাইওয়ান প্রণালী এবং আশপাশের এলাকার পরিস্থিতির ওপর দেশের সামরিক বাহিনী গভীরভাবে নজর রাখে এবং শান্তভাবে সেসব কর্মকাণ্ডের প্রতিক্রিয়া জানায়। সুতরাং জনগণ আশ্বস্ত থাকতে পারে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, তাইওয়ান প্রণালী এবং এই অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষা করা তাইওয়ান ও চীন উভয়েরই দায়িত্ব।