Dhaka , Wednesday, 8 February 2023

বিদেশি কর্মীদের গুরুত্ব তুলে ধরলেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:04:37 am, Tuesday, 17 January 2023
  • 13 বার

মালয়েশিয়া ডেস্ক: চলতি বছর মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৫টি সোর্স কান্ট্রি থেকে পাঁচ লাখ বিদেশি কর্মী প্রবেশ করবে। তবে তা স্থানীয় নাগরিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগকে প্রভাবিত করবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী ভি শিবাকুমার।

পেরাক রাজ্যের কিন্তা জেলার পুসিং শহরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি জানান, এই পাঁচ লাখ শ্রমিক আনা হবে মালয়েশিয়ার বৃক্ষরোপণ, কৃষি ও নির্মাণ খাতে। এসব খাতে স্থানীয় নাগরিকদের আগ্রহ না থাকায় বিদেশি শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হবে।

ভি শিবাকুমার বলেন, বৃক্ষরোপণ, কৃষি ও নির্মাণ খাতে স্থানীয়দের কাজ করানো আমাদের জন্য অনেক কঠিন হয়ে পড়েছে। এসব খাতে বিদেশি কর্মীদের ওপর আমাদের নির্ভরতা অনেক বেশি। আমরা যদি পর্যাপ্ত শ্রমিক সরবরাহ করতে না পারি, তাহলে এই খাতগুলোর সর্বোত্তম কার্যক্রম ব্যাহত হবে এবং এর ফলে আমাদের দেশের বিপুল ক্ষতি হবে।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ায় শ্রমিক ঘাটতি অবিলম্বে সমাধান করতে হবে। কারণ এটি অর্থনীতিকে প্রভাবিত করতে পারে। করোনা মহামারির সময় সাত লাখেরও বেশি-বিদেশি কর্মী নিজ দেশে ফিরে গেছেন। মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিদেশি কর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়া সহজ ও ত্বরান্বিত করার জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। যার মাধ্যমে এখন থেকে তিন কর্মদিবসের মধ্যে বিদেশি কর্মীদের আবেদন অনুমোদন দেয়া হবে।

পর্যাপ্ত কর্মী না থাকলে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে উল্লেখ করে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আগে আমরা প্রয়োজনীয় খাতগুলো পরিচালনার জন্য জনশক্তি সরবরাহ করে থাকি। সরকার বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাব কমাতে পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান তিনি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

বিদেশি কর্মীদের গুরুত্ব তুলে ধরলেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী

আপডেট টাইম : 08:04:37 am, Tuesday, 17 January 2023

মালয়েশিয়া ডেস্ক: চলতি বছর মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৫টি সোর্স কান্ট্রি থেকে পাঁচ লাখ বিদেশি কর্মী প্রবেশ করবে। তবে তা স্থানীয় নাগরিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগকে প্রভাবিত করবে না বলে জানিয়েছেন দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী ভি শিবাকুমার।

পেরাক রাজ্যের কিন্তা জেলার পুসিং শহরে এক অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি জানান, এই পাঁচ লাখ শ্রমিক আনা হবে মালয়েশিয়ার বৃক্ষরোপণ, কৃষি ও নির্মাণ খাতে। এসব খাতে স্থানীয় নাগরিকদের আগ্রহ না থাকায় বিদেশি শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হবে।

ভি শিবাকুমার বলেন, বৃক্ষরোপণ, কৃষি ও নির্মাণ খাতে স্থানীয়দের কাজ করানো আমাদের জন্য অনেক কঠিন হয়ে পড়েছে। এসব খাতে বিদেশি কর্মীদের ওপর আমাদের নির্ভরতা অনেক বেশি। আমরা যদি পর্যাপ্ত শ্রমিক সরবরাহ করতে না পারি, তাহলে এই খাতগুলোর সর্বোত্তম কার্যক্রম ব্যাহত হবে এবং এর ফলে আমাদের দেশের বিপুল ক্ষতি হবে।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ায় শ্রমিক ঘাটতি অবিলম্বে সমাধান করতে হবে। কারণ এটি অর্থনীতিকে প্রভাবিত করতে পারে। করোনা মহামারির সময় সাত লাখেরও বেশি-বিদেশি কর্মী নিজ দেশে ফিরে গেছেন। মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিদেশি কর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়া সহজ ও ত্বরান্বিত করার জন্য একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে। যার মাধ্যমে এখন থেকে তিন কর্মদিবসের মধ্যে বিদেশি কর্মীদের আবেদন অনুমোদন দেয়া হবে।

পর্যাপ্ত কর্মী না থাকলে অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে উল্লেখ করে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আগে আমরা প্রয়োজনীয় খাতগুলো পরিচালনার জন্য জনশক্তি সরবরাহ করে থাকি। সরকার বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাব কমাতে পদক্ষেপ নেবে বলেও জানান তিনি।