Dhaka , Saturday, 4 February 2023

সাকিবের নেতৃত্ব নিয়ে যা বললেন ইফতেখার

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 09:22:02 am, Friday, 20 January 2023
  • 14 বার

স্পোর্টস ডেস্ক: সাকিব আল হাসান ও ইফতেখার আহমেদের রেকর্ড জুটিতে ২৩৮ রান তোলার পর রংপুর রাইডার্সকে উড়িয়ে দিয়েছে ফরচুন বরিশাল। ইফতেখার অপরাজিত ছিলেন ১০০ রানে। তিনি ৯টি ছক্কার সঙ্গে মেরেছেন ৬টি চার। আর ৮৯ রানের অপরাজিত ইনিংসে সাকিব মেরেছেন ৯টি চার ও ৬টি ছক্কা। দুজন মিলে করেছেন ১৯২ রান। এটি পঞ্চম উইকেটে টি-টোয়েন্টিতেই সর্বোচ্চ রানের জুটি।

বৃহস্পতিবার বরিশালের ৬৭ রানের জয়ের দিন ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা ইফতেখার সংবাদ সম্মেলনে এসে সাকিবকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

সাকিবের নেতৃত্ব নিয়ে তিনি বলেছেন, সাকিব অসাধারণ অধিনায়ক। আমি অনেকের সঙ্গেই খেলেছি…তার অধীনেই সর্বশেষ টি-টেনেও খেললাম। সে ক্রিকেটারদের যেভাবে অনুপ্রাণিত করে, আমার মনে হয় খেলোয়াড়দের এমন সমর্থন করা অধিনায়ক খুব কমই আছে। আমাদের সঙ্গে জুনিয়র ক্রিকেটার আছে, ভুল তো হয়ই, ভুল না হলে তো সে মানুষ না। তাদের এত এত সমর্থন করে, তাদের বলে তোমাদের ইচ্ছে মতো করো সবকিছু, বলো তোমরা কোথায় ফিল্ডিং করতে চাও।

ব্যক্তিগত ৭০ রানের সময় সাকিবের সঙ্গে সেঞ্চুরি নিয়ে কথা হয় ইফতেখারের। এরপর থেকেই তাকে স্ট্রাইক দিয়ে তিন অঙ্কে পৌঁছানোর সুযোগ করে দেন সাকিব। তিনি বলেন, ৭০ রানে ছিলাম। তখন সাকিব ভাইকে আমি বলেছিলাম আমি শতরানের পেছনে ছুটি। যত বেশি স্ট্রাইক পাব, তত ভালো। তিনি বলেছিলন, আমি আপনাকে সাপোর্ট দিচ্ছি। আপনি ছুটতে থাকেন।

সাকিবের সঙ্গে ইফতেখারের জুটির রেকর্ডের কথা কি জানতেন? এমন প্রশ্নে ইফতেখার বলেছেন, ‘এটা তো জানতাম না। এটা তো খুব খুশির সংবাদ।’

ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস কি না এমন জিজ্ঞাসায় ইফতেখারের জবাব, এমন না। এর আগেও ভালো ভালো ইনিংস খেলেছি। কিন্তু এটা আমার জীবনের অন্যতম সেরা ইনিংস। আমি নিজে এটা উপভোগ করেছি। কারণ দল খুব বাজে অবস্থায় ছিল, দলের চার ব্যাটার আউট হয়ে গিয়েছিল। দল জিতেছে, এটাই সবচেয়ে বড় কথা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

সাকিবের নেতৃত্ব নিয়ে যা বললেন ইফতেখার

আপডেট টাইম : 09:22:02 am, Friday, 20 January 2023

স্পোর্টস ডেস্ক: সাকিব আল হাসান ও ইফতেখার আহমেদের রেকর্ড জুটিতে ২৩৮ রান তোলার পর রংপুর রাইডার্সকে উড়িয়ে দিয়েছে ফরচুন বরিশাল। ইফতেখার অপরাজিত ছিলেন ১০০ রানে। তিনি ৯টি ছক্কার সঙ্গে মেরেছেন ৬টি চার। আর ৮৯ রানের অপরাজিত ইনিংসে সাকিব মেরেছেন ৯টি চার ও ৬টি ছক্কা। দুজন মিলে করেছেন ১৯২ রান। এটি পঞ্চম উইকেটে টি-টোয়েন্টিতেই সর্বোচ্চ রানের জুটি।

বৃহস্পতিবার বরিশালের ৬৭ রানের জয়ের দিন ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা ইফতেখার সংবাদ সম্মেলনে এসে সাকিবকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন।

সাকিবের নেতৃত্ব নিয়ে তিনি বলেছেন, সাকিব অসাধারণ অধিনায়ক। আমি অনেকের সঙ্গেই খেলেছি…তার অধীনেই সর্বশেষ টি-টেনেও খেললাম। সে ক্রিকেটারদের যেভাবে অনুপ্রাণিত করে, আমার মনে হয় খেলোয়াড়দের এমন সমর্থন করা অধিনায়ক খুব কমই আছে। আমাদের সঙ্গে জুনিয়র ক্রিকেটার আছে, ভুল তো হয়ই, ভুল না হলে তো সে মানুষ না। তাদের এত এত সমর্থন করে, তাদের বলে তোমাদের ইচ্ছে মতো করো সবকিছু, বলো তোমরা কোথায় ফিল্ডিং করতে চাও।

ব্যক্তিগত ৭০ রানের সময় সাকিবের সঙ্গে সেঞ্চুরি নিয়ে কথা হয় ইফতেখারের। এরপর থেকেই তাকে স্ট্রাইক দিয়ে তিন অঙ্কে পৌঁছানোর সুযোগ করে দেন সাকিব। তিনি বলেন, ৭০ রানে ছিলাম। তখন সাকিব ভাইকে আমি বলেছিলাম আমি শতরানের পেছনে ছুটি। যত বেশি স্ট্রাইক পাব, তত ভালো। তিনি বলেছিলন, আমি আপনাকে সাপোর্ট দিচ্ছি। আপনি ছুটতে থাকেন।

সাকিবের সঙ্গে ইফতেখারের জুটির রেকর্ডের কথা কি জানতেন? এমন প্রশ্নে ইফতেখার বলেছেন, ‘এটা তো জানতাম না। এটা তো খুব খুশির সংবাদ।’

ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস কি না এমন জিজ্ঞাসায় ইফতেখারের জবাব, এমন না। এর আগেও ভালো ভালো ইনিংস খেলেছি। কিন্তু এটা আমার জীবনের অন্যতম সেরা ইনিংস। আমি নিজে এটা উপভোগ করেছি। কারণ দল খুব বাজে অবস্থায় ছিল, দলের চার ব্যাটার আউট হয়ে গিয়েছিল। দল জিতেছে, এটাই সবচেয়ে বড় কথা।