Dhaka , Wednesday, 8 February 2023

স্ত্রীকে বয়ফ্রেন্ডসহ হত্যার ষড়যন্ত্র : এফবিআই কর্তৃক প্রবাসী শওকত গ্রেফতার

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 10:00:37 am, Friday, 20 January 2023
  • 16 বার

প্রবাস ডেস্ক: স্ত্রী এবং তার বয়ফ্রেন্ডকে হত্যা করার জন্যে ঘাতক ভাড়া করতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন বস্টনের প্রবাসী মোহাম্মদ শওকত চৌধুরী (৪৬)। মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারি তাকে বস্টনের পুলিশ গ্রেফতার করেছে। চট্টগ্রামের রাউজান থেকে বস্টনে এসে স্ত্রী ও সন্তানসহ বসতি গড়েন শওকত। ট্যাক্সি চালিয়ে সংসার চালাতেন আগে। সংসারের প্রয়োজনে কখনো কখনো ১৬/১৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ট্যাক্সি চালান শওকত। এ অবস্থায় তার স্ত্রীর সাথে সখ্যতা গড়েন আরেক প্রবাসী। এ নিয়ে তিক্ততা চলছে কয়েক বছর ধরেই। মঙ্গলবার তাকে বস্টনের ফেডারেল কোর্টে সোপর্দ করা হয়।

শওকতের বিরুদ্ধে খুনের জন্যে ঘাতক ভাড়া করার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তার জামিনের শুনানি হবার কথা ২০ জানুয়ারি। মামলায় জানা গেছে, যাকে তিনি ঘাতক ভেবেছিলেন, প্রকৃত অর্থে তিনি ছিলেন এফবিআই’র এজেন্ট। মামলায় আরও বলা হয়েছে, এর আগে শওকত তার স্ত্রীকে হত্যার জন্যে আরেকজনকে নগদ অর্থ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার অনুরোধ অনুযায়ী কাজ করেনি। অর্থাৎ শওকত তার স্ত্রীসহ বয়ফ্রেন্ডকে হত্যায় মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। শওকতের এমন মনোভাব গত নভেম্বরে অবহিত করা হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি কর্তৃপক্ষকে। সেই ছদ্মবেশী এজেন্ট শওকতের সাথে যোগাযোগ করলে শওকত তাকে জানান যে, কাজটি সম্পন্ন হলেই সমুদয় অর্থ প্রদান করা হবে। সেই অর্থ সংগ্রহের জন্যে প্রয়োজন হলে তিনি ডাকাতি করতেও দ্বিধা করবেন না। গত ডিসেম্বর এবং চলতি মাসে বেশ কয়েক দফা বৈঠক করেন শওকত সেই এজেন্টের সাথে।

উল্লেখ্য, শওকতের স্ত্রী ইতিমধ্যেই তার ঘর ছেড়েছেন বয়ফ্রেন্ডের হাত ধরে। সন্তানকেও সাথে নিয়েছেন। মামলার বিবরণে প্রকাশ, দু’জনকে হত্যার জন্যে মোট ৮ হাজার ডলার প্রদানের চুক্তিতে আগাম দেয়ার কথা ৫০০ ডলার। আরেকবার যেহেতু ঠকেছেন তাই এবার কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আর কোন ডলার দেবেন না। সেই ৫০০ ডলার প্রদানের জন্যেই মঙ্গলবার সকালে মিলিত হন কথিত সেই ঘাতকের সাথে। সে সময়েই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের অক্টোবরে শওকত চৌধুরীকে বস্টন মিউনিসিপ্যাল কোর্ট দোষী সাব্যস্ত করে তার স্ত্রীর কাছে না যাবার নির্দেশ লঙ্ঘনের জন্যে।

বস্টনের ইউএস এটর্নি রাচায়েল এস রোলিন্স এবং এফবিআইয়ের স্পেশাল এজেন্ট যোসেফ আর বোনাভলেন্টো মোহাম্মদ শওকত চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলার তথ্য জানাতে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। শওকত দোষী সাব্যস্ত হলে কমপক্ষে ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে এবং তার পর ৩ বছর কর্তৃপক্ষের নজরদারিতে থাকতে হবে। এছাড়া জরিমানা হতে পারে কমপক্ষে আড়াই লাখ ডলার।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

স্ত্রীকে বয়ফ্রেন্ডসহ হত্যার ষড়যন্ত্র : এফবিআই কর্তৃক প্রবাসী শওকত গ্রেফতার

আপডেট টাইম : 10:00:37 am, Friday, 20 January 2023

প্রবাস ডেস্ক: স্ত্রী এবং তার বয়ফ্রেন্ডকে হত্যা করার জন্যে ঘাতক ভাড়া করতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন বস্টনের প্রবাসী মোহাম্মদ শওকত চৌধুরী (৪৬)। মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারি তাকে বস্টনের পুলিশ গ্রেফতার করেছে। চট্টগ্রামের রাউজান থেকে বস্টনে এসে স্ত্রী ও সন্তানসহ বসতি গড়েন শওকত। ট্যাক্সি চালিয়ে সংসার চালাতেন আগে। সংসারের প্রয়োজনে কখনো কখনো ১৬/১৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ট্যাক্সি চালান শওকত। এ অবস্থায় তার স্ত্রীর সাথে সখ্যতা গড়েন আরেক প্রবাসী। এ নিয়ে তিক্ততা চলছে কয়েক বছর ধরেই। মঙ্গলবার তাকে বস্টনের ফেডারেল কোর্টে সোপর্দ করা হয়।

শওকতের বিরুদ্ধে খুনের জন্যে ঘাতক ভাড়া করার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তার জামিনের শুনানি হবার কথা ২০ জানুয়ারি। মামলায় জানা গেছে, যাকে তিনি ঘাতক ভেবেছিলেন, প্রকৃত অর্থে তিনি ছিলেন এফবিআই’র এজেন্ট। মামলায় আরও বলা হয়েছে, এর আগে শওকত তার স্ত্রীকে হত্যার জন্যে আরেকজনকে নগদ অর্থ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার অনুরোধ অনুযায়ী কাজ করেনি। অর্থাৎ শওকত তার স্ত্রীসহ বয়ফ্রেন্ডকে হত্যায় মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। শওকতের এমন মনোভাব গত নভেম্বরে অবহিত করা হয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি কর্তৃপক্ষকে। সেই ছদ্মবেশী এজেন্ট শওকতের সাথে যোগাযোগ করলে শওকত তাকে জানান যে, কাজটি সম্পন্ন হলেই সমুদয় অর্থ প্রদান করা হবে। সেই অর্থ সংগ্রহের জন্যে প্রয়োজন হলে তিনি ডাকাতি করতেও দ্বিধা করবেন না। গত ডিসেম্বর এবং চলতি মাসে বেশ কয়েক দফা বৈঠক করেন শওকত সেই এজেন্টের সাথে।

উল্লেখ্য, শওকতের স্ত্রী ইতিমধ্যেই তার ঘর ছেড়েছেন বয়ফ্রেন্ডের হাত ধরে। সন্তানকেও সাথে নিয়েছেন। মামলার বিবরণে প্রকাশ, দু’জনকে হত্যার জন্যে মোট ৮ হাজার ডলার প্রদানের চুক্তিতে আগাম দেয়ার কথা ৫০০ ডলার। আরেকবার যেহেতু ঠকেছেন তাই এবার কাজটি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আর কোন ডলার দেবেন না। সেই ৫০০ ডলার প্রদানের জন্যেই মঙ্গলবার সকালে মিলিত হন কথিত সেই ঘাতকের সাথে। সে সময়েই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের অক্টোবরে শওকত চৌধুরীকে বস্টন মিউনিসিপ্যাল কোর্ট দোষী সাব্যস্ত করে তার স্ত্রীর কাছে না যাবার নির্দেশ লঙ্ঘনের জন্যে।

বস্টনের ইউএস এটর্নি রাচায়েল এস রোলিন্স এবং এফবিআইয়ের স্পেশাল এজেন্ট যোসেফ আর বোনাভলেন্টো মোহাম্মদ শওকত চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলার তথ্য জানাতে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। শওকত দোষী সাব্যস্ত হলে কমপক্ষে ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে এবং তার পর ৩ বছর কর্তৃপক্ষের নজরদারিতে থাকতে হবে। এছাড়া জরিমানা হতে পারে কমপক্ষে আড়াই লাখ ডলার।