Dhaka , Monday, 30 January 2023

টরন্টোয় চুরাশিয়ানদের মিলনমেলা

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:15:43 am, Tuesday, 24 January 2023
  • 12 বার

প্রবাস ডেস্ক: কানাডায় বসবাসরত চুরাশিয়ানদের (১৯৮৪ সালে মাধ্যমিক পাস) মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। টরন্টোর ডেনফোর্থস্থ একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত মিলনমেলায় প্রাণের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেন প্রায় সত্তরজন সমবয়সী চুরাশিয়ান ও পরিবারের সদস্যরা। প্রাণের এ অনুষ্ঠানে আড্ডা, গান, স্মৃতিচারণ, ছবি তোলাসহ হই হুল্লোড় করে কেটেছে সকলের।

সন্ধ্যা সাতটায় চুরাশিয়ান সদস্য ইমাম উদ্দিনের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। এরপর চলে পরিচয় পর্ব। রাত যত বাড়ছিল ততই রঙিন হয়ে উঠে অনুষ্ঠানস্থল। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিশেষ করে আড্ডা, গান, কবিতা আবৃত্তি, স্মৃতিচারণ, কেক কাটা, ছবি তোলাসহ হই-হুল্লোড়ে কেটেছে প্রতিটি সময়। এক ফাঁকে হয়েছে নৈশভোজ। তৌহিদা চৌধুরী ও আলমগীর কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন চুরাশিয়ান শিখা রউফ, অমিত শুভ, আতিয়া আহমেদ, জাকির সাইদ প্রমুখ। মো. ফারুক, আজিম অপুর্ব, মঈন শামশাদ চুরাশিয়ান পরিবারের সদস্য হিসেবে গান করেন।

কবিতা আবৃত্তি করেন দিলরুবা বাবলি, ম্যাক আজাদ, সুফিয়া নাজনীন প্রমুখ। আর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য ও স্মৃতিচারণ করেন ড. মো. হানিফ, কানিজ ফাতেমা চৌধুরী, সোলায়মান তালুত রবিন, যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া থেকে আগত চুরাশিয়ান ডা. গোলাম আশিক খান, নিউইয়র্ক থেকে আগত সোনিয়া সুলতানা শম্পা প্রমুখ।

টরন্টোয় চুরাশিয়ানদের এ মিলন মেলায় সমবয়সী প্রিয় বন্ধুদের সান্নিধ্য পেয়ে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েন অনেকেই। কেউ স্মৃতিচারণ করেন পুরনো দিনের। কৈশোরের সমাপ্তি আর তারুণ্যের বাধভাঙ্গা উচ্ছ্বাসে চুরাশি ছিল সবার জীবনের বাক পরিবর্তনের গল্প। ৩৯ বছর আগের তারুণ্যের সেই চুরাশি আর ২০২৩ এর বার্ধক্যের হাতছানিতে নতুন করে স্বপ্ন বুনছে কানাডার চুরাশিয়ানদের অনেকেই। সে গল্পটাই উঠে এসেছে বিভিন্নজনের আলোচনায়।
সবাই একসাথে গান গেয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানেন। সমাপনী বক্তব্য দেন চুরাশিয়ান মিজান রহমান।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

টরন্টোয় চুরাশিয়ানদের মিলনমেলা

আপডেট টাইম : 08:15:43 am, Tuesday, 24 January 2023

প্রবাস ডেস্ক: কানাডায় বসবাসরত চুরাশিয়ানদের (১৯৮৪ সালে মাধ্যমিক পাস) মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। টরন্টোর ডেনফোর্থস্থ একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত মিলনমেলায় প্রাণের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেন প্রায় সত্তরজন সমবয়সী চুরাশিয়ান ও পরিবারের সদস্যরা। প্রাণের এ অনুষ্ঠানে আড্ডা, গান, স্মৃতিচারণ, ছবি তোলাসহ হই হুল্লোড় করে কেটেছে সকলের।

সন্ধ্যা সাতটায় চুরাশিয়ান সদস্য ইমাম উদ্দিনের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠান। এরপর চলে পরিচয় পর্ব। রাত যত বাড়ছিল ততই রঙিন হয়ে উঠে অনুষ্ঠানস্থল। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিশেষ করে আড্ডা, গান, কবিতা আবৃত্তি, স্মৃতিচারণ, কেক কাটা, ছবি তোলাসহ হই-হুল্লোড়ে কেটেছে প্রতিটি সময়। এক ফাঁকে হয়েছে নৈশভোজ। তৌহিদা চৌধুরী ও আলমগীর কবিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন চুরাশিয়ান শিখা রউফ, অমিত শুভ, আতিয়া আহমেদ, জাকির সাইদ প্রমুখ। মো. ফারুক, আজিম অপুর্ব, মঈন শামশাদ চুরাশিয়ান পরিবারের সদস্য হিসেবে গান করেন।

কবিতা আবৃত্তি করেন দিলরুবা বাবলি, ম্যাক আজাদ, সুফিয়া নাজনীন প্রমুখ। আর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য ও স্মৃতিচারণ করেন ড. মো. হানিফ, কানিজ ফাতেমা চৌধুরী, সোলায়মান তালুত রবিন, যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া থেকে আগত চুরাশিয়ান ডা. গোলাম আশিক খান, নিউইয়র্ক থেকে আগত সোনিয়া সুলতানা শম্পা প্রমুখ।

টরন্টোয় চুরাশিয়ানদের এ মিলন মেলায় সমবয়সী প্রিয় বন্ধুদের সান্নিধ্য পেয়ে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েন অনেকেই। কেউ স্মৃতিচারণ করেন পুরনো দিনের। কৈশোরের সমাপ্তি আর তারুণ্যের বাধভাঙ্গা উচ্ছ্বাসে চুরাশি ছিল সবার জীবনের বাক পরিবর্তনের গল্প। ৩৯ বছর আগের তারুণ্যের সেই চুরাশি আর ২০২৩ এর বার্ধক্যের হাতছানিতে নতুন করে স্বপ্ন বুনছে কানাডার চুরাশিয়ানদের অনেকেই। সে গল্পটাই উঠে এসেছে বিভিন্নজনের আলোচনায়।
সবাই একসাথে গান গেয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি টানেন। সমাপনী বক্তব্য দেন চুরাশিয়ান মিজান রহমান।