Dhaka , Saturday, 4 February 2023

ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণে লাগাম, নগদ ছাড়া এলসি নয়

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:23:24 am, Tuesday, 24 January 2023
  • 14 বার

অর্থনীতি ডেস্ক: ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণে লাগাম টানা হয়েছে। ব্যাংকটি সর্বোচ্চ ১০ কোটি টাকা ঋণ দিতে পারবে। এর বেশি ঋণ দিতে পারবে না। একই সঙ্গে শতভাগ নগদ জমা ছাড়া ব্যাংকটি আমদানি ঋণপত্র (এলসি) খুলতে পারবে না বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক নির্দেশনা দিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে একটি চিঠি ন্যাশনাল ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, ন্যাশনাল ব্যাংক সর্বোচ্চ ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত কৃষি, চলতি মূলধন, এসএমই ও ভোক্তা ঋণ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পুনঃঅর্থায়ন সুবিধার আওতায় ঋণ বিতরণ ছাড়া অন্য কোনো ঋণ দিতে পারবে না। এছাড়া ঋণপত্র খুলতে হলে গ্রাহকের কাছ থেকে পুরো টাকা আগে জমা নিতে হবে। আগে অনুমোদন হওয়া ঋণের অর্থের ১০ কোটি টাকার বেশি বিতরণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে। আগের ঋণের বকেয়া অর্থ নগদ আদায় ছাড়া ওই ঋণ নবায়ন করা যাবে না। অন্য ব্যাংকের কোনো ঋণ অধিগ্রহণ করা যাবে না বলেও চিঠিতে বলা হয়েছে।

এর আগেও অনিয়মের কারণে ব্যাংকটির ঋণ বিতরণ বন্ধ করে দিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। পরে তা শিথিল করা হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফের ব্যাংকটির ওপর কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করলো।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণে লাগাম, নগদ ছাড়া এলসি নয়

আপডেট টাইম : 08:23:24 am, Tuesday, 24 January 2023

অর্থনীতি ডেস্ক: ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণে লাগাম টানা হয়েছে। ব্যাংকটি সর্বোচ্চ ১০ কোটি টাকা ঋণ দিতে পারবে। এর বেশি ঋণ দিতে পারবে না। একই সঙ্গে শতভাগ নগদ জমা ছাড়া ব্যাংকটি আমদানি ঋণপত্র (এলসি) খুলতে পারবে না বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক নির্দেশনা দিয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়ে একটি চিঠি ন্যাশনাল ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, ন্যাশনাল ব্যাংক সর্বোচ্চ ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত কৃষি, চলতি মূলধন, এসএমই ও ভোক্তা ঋণ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের পুনঃঅর্থায়ন সুবিধার আওতায় ঋণ বিতরণ ছাড়া অন্য কোনো ঋণ দিতে পারবে না। এছাড়া ঋণপত্র খুলতে হলে গ্রাহকের কাছ থেকে পুরো টাকা আগে জমা নিতে হবে। আগে অনুমোদন হওয়া ঋণের অর্থের ১০ কোটি টাকার বেশি বিতরণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদন নিতে হবে। আগের ঋণের বকেয়া অর্থ নগদ আদায় ছাড়া ওই ঋণ নবায়ন করা যাবে না। অন্য ব্যাংকের কোনো ঋণ অধিগ্রহণ করা যাবে না বলেও চিঠিতে বলা হয়েছে।

এর আগেও অনিয়মের কারণে ব্যাংকটির ঋণ বিতরণ বন্ধ করে দিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। পরে তা শিথিল করা হয়। কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফের ব্যাংকটির ওপর কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করলো।