Dhaka , Monday, 30 January 2023

সন্ধ্যা হলেই বাঙালিদের ঢল নামে ‘আজমান বাঙালি মার্কেটে’

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:32:18 am, Tuesday, 24 January 2023
  • 16 বার

প্রবাস ডেস্ক: বাংলা ভাষাভাষী জনগোষ্ঠিকে কেন্দ্র করেই আরব আমিরাতের বুকে গড়ে উঠেছে বাঙালি অধ্যুষিত বেশ কিছু এলাকা। যার মধ্যে অন্যতম আজমানের বাঙালি মার্কেট। শুধু আরব আমিরাতে নয়, বাংলাদেশিরা যেখানেই যান সেখানেই গড়ে তোলেন মিনি বাংলাদেশ।

আমিরাতের আজমান ২নং ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়াকে সবাই বাঙালি মার্কেট নামে জানে। এমন বাঙালি মার্কেট রয়েছে আরব আমিরাতের বেশ কয়েকটি। এসব স্থানে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন। রাজনৈতিক সংগঠনের শাখা-প্রশাখা ডালপালা পত্রপল্লবের প্রতিযোগিতা তো আছেই। সেসব স্থানে অনেকেই বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চা, সাহিত্য সভা, সাহিত্য আড্ডা, সমাবেশ, সেমিনার করে যাচ্ছেন হরদমে। কর্মব্যস্ততার ফাঁকে পিকনিকে আয়োজনও চালিয়ে যাচ্ছেন বিরামহীনভাবে।

সন্ধ্যা হলেই বাঙালিদের পদচারণায় মুখর হয় এই মার্কেট। বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টের মতই সামিয়া হোটেল ও ঢাকা হোটেলসহ বাঙালি রেস্টুরেন্টগুলোকে ঘিরে চলে রাতভর আড্ডা। দোকান ছাড়াও বাংলাদেশের ফুটপাতের মত এখানেও ফুটপাতে খাবারের দোকানসহ নানা দোকানের পসরা সাজিয়ে বসে বাঙালি প্রবাসীরা। সবজি, ঝালমুড়ি, চানাচুর, ভাপা পিঠাসহ দেশীয় নানা খাবার পাওয়া যায় এখানে। রয়েছে বাঙালি সেলুন গ্রোসারি, মোবাইল শপসহ নানা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

কথা হয় সামিয়া হোটেল মালিক আব্বাস আলী খাঁনের সাথে। তিনি জানান, বাংলাদেশিরা এই জায়গায় গার্মেন্টস শিল্প কারখানা গড়ে তুলেছে। সেই হিসেবে এই এরিয়াতে সেলাই কাজের যাবতীয় জিনিস পত্রের দোকান খুলেছি বাংলাদেশি প্রবাসীরা। এশিয়ার অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশিরা রয়েছে বেশি। সেই থেকে বাঙালি মার্কেট নামে একটি সড়কের নামকরণ হয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

সন্ধ্যা হলেই বাঙালিদের ঢল নামে ‘আজমান বাঙালি মার্কেটে’

আপডেট টাইম : 08:32:18 am, Tuesday, 24 January 2023

প্রবাস ডেস্ক: বাংলা ভাষাভাষী জনগোষ্ঠিকে কেন্দ্র করেই আরব আমিরাতের বুকে গড়ে উঠেছে বাঙালি অধ্যুষিত বেশ কিছু এলাকা। যার মধ্যে অন্যতম আজমানের বাঙালি মার্কেট। শুধু আরব আমিরাতে নয়, বাংলাদেশিরা যেখানেই যান সেখানেই গড়ে তোলেন মিনি বাংলাদেশ।

আমিরাতের আজমান ২নং ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়াকে সবাই বাঙালি মার্কেট নামে জানে। এমন বাঙালি মার্কেট রয়েছে আরব আমিরাতের বেশ কয়েকটি। এসব স্থানে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ধরনের সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন। রাজনৈতিক সংগঠনের শাখা-প্রশাখা ডালপালা পত্রপল্লবের প্রতিযোগিতা তো আছেই। সেসব স্থানে অনেকেই বাংলা সাহিত্য সংস্কৃতি চর্চা, সাহিত্য সভা, সাহিত্য আড্ডা, সমাবেশ, সেমিনার করে যাচ্ছেন হরদমে। কর্মব্যস্ততার ফাঁকে পিকনিকে আয়োজনও চালিয়ে যাচ্ছেন বিরামহীনভাবে।

সন্ধ্যা হলেই বাঙালিদের পদচারণায় মুখর হয় এই মার্কেট। বাংলাদেশি রেস্টুরেন্টের মতই সামিয়া হোটেল ও ঢাকা হোটেলসহ বাঙালি রেস্টুরেন্টগুলোকে ঘিরে চলে রাতভর আড্ডা। দোকান ছাড়াও বাংলাদেশের ফুটপাতের মত এখানেও ফুটপাতে খাবারের দোকানসহ নানা দোকানের পসরা সাজিয়ে বসে বাঙালি প্রবাসীরা। সবজি, ঝালমুড়ি, চানাচুর, ভাপা পিঠাসহ দেশীয় নানা খাবার পাওয়া যায় এখানে। রয়েছে বাঙালি সেলুন গ্রোসারি, মোবাইল শপসহ নানা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

কথা হয় সামিয়া হোটেল মালিক আব্বাস আলী খাঁনের সাথে। তিনি জানান, বাংলাদেশিরা এই জায়গায় গার্মেন্টস শিল্প কারখানা গড়ে তুলেছে। সেই হিসেবে এই এরিয়াতে সেলাই কাজের যাবতীয় জিনিস পত্রের দোকান খুলেছি বাংলাদেশি প্রবাসীরা। এশিয়ার অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশিরা রয়েছে বেশি। সেই থেকে বাঙালি মার্কেট নামে একটি সড়কের নামকরণ হয়েছে।