Dhaka , Wednesday, 24 April 2024

বিএএন কানাডার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 04:29:25 pm, Monday, 30 January 2023
  • 30 বার

প্রবাস ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবের সবচেয়ে বড় শিকার হবে বাংলাদেশ। আর তা থেকে উত্তরণের জন্য বাংলাদেশে পরিবেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য প্রবাসে থাকা বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞদের অভিজ্ঞতা এবং নেটওয়ার্ক কাজে লাগানোর তাগিদ দিয়েছেন কানাডায় বসবাসরত পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

টরন্টোর বাঙালি অধ্যুষিত ফাইভ মেসি স্কোয়ার মিলনায়তনে বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্কের কানাডা চ্যাপ্টারের ( বিএএন কানাডা) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব পরামর্শ এবং মতামত তুলে ধরেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিক্রিযা মোকাবিলা এবং বাংলাদেশের পরিবেশ উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞদের সংযুক্ত করার প্রক্রিয়ায় ভূমিকা রাখতে বাংলাদেশি এনভায়রমেন্ট নেটওয়ার্কের জন্ম হয়। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, রাশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই সংগঠন সক্রিয় রয়েছে। এবার কানাডায় আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করলো।

ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন পরিবেশ বিজ্ঞানী ড. মনিরুল মির্জা, সেভ আওয়ার এনভায়রনমেন্ট কানাডার প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এ কে এম সাইদুজ জামান, বাংলাদেশ কানাডা কমিউনিটি সার্ভিসেস এর নির্বাহী পরিচালক ড. নাসিমা আক্তার। নতুন দেশের প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সমন্বয়ক অধ্যাপক টিটো খন্দকার, অধ্যাপক ড. সুজিত দত্ত, ড. তারিক আলী, সোলায়মান তালুত রবিন, বিজ্ঞান লেখক স্বপন বিশ্বাস, জান্নাতুল ইসলাম, সোপা রহমান প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও বিশেষজ্ঞদের পাশাপাশি প্রবাসীদের সম্মিলিত উদ্যোগের মাধ্যমে বাংলাদেশের পরিবেশ উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা সম্ভব। এজন্য পারস্পরিক যোগাযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি সম্মিলিত উদ্যোগের তাগিদ দেন তারা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

বিএএন কানাডার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

আপডেট টাইম : 04:29:25 pm, Monday, 30 January 2023

প্রবাস ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাবের সবচেয়ে বড় শিকার হবে বাংলাদেশ। আর তা থেকে উত্তরণের জন্য বাংলাদেশে পরিবেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য প্রবাসে থাকা বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞদের অভিজ্ঞতা এবং নেটওয়ার্ক কাজে লাগানোর তাগিদ দিয়েছেন কানাডায় বসবাসরত পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

টরন্টোর বাঙালি অধ্যুষিত ফাইভ মেসি স্কোয়ার মিলনায়তনে বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট নেটওয়ার্কের কানাডা চ্যাপ্টারের ( বিএএন কানাডা) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব পরামর্শ এবং মতামত তুলে ধরেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিক্রিযা মোকাবিলা এবং বাংলাদেশের পরিবেশ উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশি বিশেষজ্ঞদের সংযুক্ত করার প্রক্রিয়ায় ভূমিকা রাখতে বাংলাদেশি এনভায়রমেন্ট নেটওয়ার্কের জন্ম হয়। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, রাশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই সংগঠন সক্রিয় রয়েছে। এবার কানাডায় আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করলো।

ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামানের সভাপতিত্বে এই অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন পরিবেশ বিজ্ঞানী ড. মনিরুল মির্জা, সেভ আওয়ার এনভায়রনমেন্ট কানাডার প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এ কে এম সাইদুজ জামান, বাংলাদেশ কানাডা কমিউনিটি সার্ভিসেস এর নির্বাহী পরিচালক ড. নাসিমা আক্তার। নতুন দেশের প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সমন্বয়ক অধ্যাপক টিটো খন্দকার, অধ্যাপক ড. সুজিত দত্ত, ড. তারিক আলী, সোলায়মান তালুত রবিন, বিজ্ঞান লেখক স্বপন বিশ্বাস, জান্নাতুল ইসলাম, সোপা রহমান প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও বিশেষজ্ঞদের পাশাপাশি প্রবাসীদের সম্মিলিত উদ্যোগের মাধ্যমে বাংলাদেশের পরিবেশ উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা সম্ভব। এজন্য পারস্পরিক যোগাযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি সম্মিলিত উদ্যোগের তাগিদ দেন তারা।