Dhaka , Tuesday, 23 April 2024

প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযানে মুক্ত করাচির পুলিশপ্রধানের কার্যালয়, নিহত ৭

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:13:00 am, Saturday, 18 February 2023
  • 36 বার

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তানের করাচি পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় তিন জঙ্গিসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৮ জন।

প্রায় চার ঘণ্টার অভিযানের পর শুক্রবার রাতে পুলিশপ্রধানের কার্যালয় জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা করা হয়।

কর্মকর্তারা বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান শুরু করলে একজন জঙ্গি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দেন। বাকি দুজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় রেঞ্জারস (সীমান্তরক্ষী) ও পুলিশ সদস্যসহ চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৮ জন।

শারিয়া ফয়সাল এলাকায় অবস্থিত পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটের দিকে হামলা শুরু করেন বন্দুকধারীরা। পুলিশ ও রেঞ্জারস সদস্যরা অভিযান চালিয়ে পাঁচতলা ভবনটি ধাপে ধাপে জঙ্গিমুক্ত করেন। রাত ১০টা ৪৬ মিনিটের দিকে গোটা ভবন জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া সিনিয়র অফিসারদের মধ্যে ডিআইজি ইস্ট মুকাদ্দাস হায়দার ছিলেন। তিনি বলেন, মোট তিনজন হামলাকারী একটি টয়োটা করোলায় করাচি পুলিশ প্রধানের অফিসে এসেছিল।

অভিযানের সময় কার্যালয়ের আশপাশে অবস্থান নেন পুলিশের স্নাইপার সদস্যরা। ওই এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়। সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ বলেছেন, হামলার সময় পুলিশপ্রধান করাচিতে ছিলেন না।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশের পোশাক পরেই হামলাকারীরা কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। পেশোয়ারে পুলিশ লাইনস মসজিদে আত্মঘাতী হামলার সময়ও একই কৌশল নিয়েছিল। ওই হামলায় ৮০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছিলেন যাদের অধিকাংশই পুলিশ সদস্য।

এদিকে, তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) হামলার দায় স্বীকার করেছে। ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিটিপির মুখপাত্র মোহাম্মদ খোরাসানি বিবৃতি দিয়ে পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে হামলার দায় স্বীকার করেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

প্রায় ৪ ঘণ্টার অভিযানে মুক্ত করাচির পুলিশপ্রধানের কার্যালয়, নিহত ৭

আপডেট টাইম : 08:13:00 am, Saturday, 18 February 2023

নিউজ ডেস্ক: পাকিস্তানের করাচি পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় তিন জঙ্গিসহ সাতজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৮ জন।

প্রায় চার ঘণ্টার অভিযানের পর শুক্রবার রাতে পুলিশপ্রধানের কার্যালয় জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা করা হয়।

কর্মকর্তারা বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান শুরু করলে একজন জঙ্গি বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দেন। বাকি দুজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় রেঞ্জারস (সীমান্তরক্ষী) ও পুলিশ সদস্যসহ চারজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১৮ জন।

শারিয়া ফয়সাল এলাকায় অবস্থিত পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটের দিকে হামলা শুরু করেন বন্দুকধারীরা। পুলিশ ও রেঞ্জারস সদস্যরা অভিযান চালিয়ে পাঁচতলা ভবনটি ধাপে ধাপে জঙ্গিমুক্ত করেন। রাত ১০টা ৪৬ মিনিটের দিকে গোটা ভবন জঙ্গিমুক্ত ঘোষণা করা হয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া সিনিয়র অফিসারদের মধ্যে ডিআইজি ইস্ট মুকাদ্দাস হায়দার ছিলেন। তিনি বলেন, মোট তিনজন হামলাকারী একটি টয়োটা করোলায় করাচি পুলিশ প্রধানের অফিসে এসেছিল।

অভিযানের সময় কার্যালয়ের আশপাশে অবস্থান নেন পুলিশের স্নাইপার সদস্যরা। ওই এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়। সিন্ধু প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলী শাহ বলেছেন, হামলার সময় পুলিশপ্রধান করাচিতে ছিলেন না।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশের পোশাক পরেই হামলাকারীরা কার্যালয়ে ঢুকে পড়েন। পেশোয়ারে পুলিশ লাইনস মসজিদে আত্মঘাতী হামলার সময়ও একই কৌশল নিয়েছিল। ওই হামলায় ৮০ জনেরও বেশি নিহত হয়েছিলেন যাদের অধিকাংশই পুলিশ সদস্য।

এদিকে, তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) হামলার দায় স্বীকার করেছে। ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিটিপির মুখপাত্র মোহাম্মদ খোরাসানি বিবৃতি দিয়ে পুলিশপ্রধানের কার্যালয়ে হামলার দায় স্বীকার করেন।