Dhaka , Saturday, 2 March 2024

কানাডায় দুর্ঘটনা : এঞ্জেলার প্রার্থনা আজ, মাহির-আরিয়ানের জানাজা কাল

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 11:02:08 am, Sunday, 19 February 2023
  • 27 বার

নিউজ ডেস্ক: কানাডার টরন্টোয় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এঞ্জেলা শ্রেয়া বাড়ৈর প্রার্থনা এবং ভিউয়িংয়ের (শেষ দর্শন) আয়োজন করা হয়েছে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ইটোবিকোকের ১২১ সিটি ভিউ ড্রাইভে অবস্থিত লোটাস ফিউনারেল অ্যান্ড ক্রিমেশন সেন্টারে। ওই দিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রার্থনায় অংশ নেওয়া যাবে।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শাহরিয়ার মাহির খান এবং আরিয়ান আলম দীপ্তর জানাজা সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাদ জোহর স্কারবোরোর ১ স্টামফোর্ড স্কয়ার নর্থে মসজিদ আল-আবেদীনে অনুষ্ঠিত হবে।

নিহতদের মরদেহ বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে। নতুন দেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর জানান, এঞ্জেলা বাড়ৈ’র মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থাপনা করছে ‘লোটাস ফিউনারেল এবং ক্রিমেশন সেন্টার’ নামে একটি ফিউনারেল সার্ভিসেস প্রতিষ্ঠান।

তিনি জানান, লোটাস ফিউনারেলের অপারেশনাল ফিউনারেল ডিরেক্টর হারমিন্দর হানসি তাকে বলেছেন, আগামী সপ্তাহে তারা এঞ্জেলার মরদেহ বিমানে তুলে দিতে পারবেন বলে আশা করছেন। সোমবার কানাডায় সরকারি ছুটি এবং কিছু আনুষ্ঠানিকতা বাকি থাকায় এই মুহূর্তে সুনির্দিষ্টভাবে ফ্লাইটের তারিখ তারা বলতে পারছেন না। তবে একটা বুকিং দেওয়া আছে বলে উল্লেখ করলেও সেটি প্রকাশ করতে তিনি সম্মত হননি।

এঞ্জেলার পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি বা ২৫ ফেব্রুয়ারি টার্কিশ এয়ারওয়েজে এঞ্জেলার মরদেহ বাংলাদেশে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। তার আগে ২৩ ফেব্রুয়ারি এঞ্জেলার বাবা ঢাকায় ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

শাহরিয়ার খান এবং আরিয়ান দীপ্তর মরদেহ অন্টারিওর করোনার অফিস থেকে ইকো ক্রিমেশন অ্যান্ড বারিয়াল সার্ভিসেস ইনকের কাছে দেওয়া হয়েছে। এই দুই জনের মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থাপনা করবে এই প্রতিষ্ঠান।

ইকো ক্রিমেশন অ্যান্ড বারিয়াল সার্ভিসেসের ফিউনারেল ডিরেক্টর নাথান রমাগনলি জানান, পরিবারের অনুমোদন না থাকায় তাদের মরদেহ কখন কীভাবে দেশে পাঠানো হবে এই ব্যাপারে তিনি কোনো তথ্য জানাতে পারছেন না।

অন্যদিকে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিতের ছেলে নিবিড় কুমার দে’র শারীরিক অবস্থার একটু উন্নতি হলেও শঙ্কা এখনো কাটেনি। টরন্টোর সেন্ট মাইকেল হাসপাতালে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি। চিকিৎসকরা তার শরীরের বিভিন্ন অংশ ক্যামেরার মাধ্যমে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন। কুমার বিশ্বজিৎ দম্পতি বর্তমানে টরন্টোতে অবস্থান করছেন।

এদিকে দুর্ঘটনায় সম্ভাবনাময় তিনটি তাজা প্রাণ ঝরে যাওয়া আর একজনের প্রাণ বাঁচানোর তীব্র লড়াইয়ের ঘটনা কেবল কানাডা নয়, সারা বিশ্বের বাংলাদেশিদের শোক বিহ্বল করেছে। পরিবারগুলো কি অবস্থার ভেতর দিয়ে যাচ্ছে সেটা ভেবে অসংখ্য মানুষ আহাজারি করছেন। এসময়ে ‘আন ফাউন্ডেড কোনো তথ্য’ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করে নিজেদের অসংবেদনশীলতাকে নগ্ন না করার আহ্বান জানিয়েছেন কানাডার নতুন দেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

কানাডায় দুর্ঘটনা : এঞ্জেলার প্রার্থনা আজ, মাহির-আরিয়ানের জানাজা কাল

আপডেট টাইম : 11:02:08 am, Sunday, 19 February 2023

নিউজ ডেস্ক: কানাডার টরন্টোয় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত এঞ্জেলা শ্রেয়া বাড়ৈর প্রার্থনা এবং ভিউয়িংয়ের (শেষ দর্শন) আয়োজন করা হয়েছে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) ইটোবিকোকের ১২১ সিটি ভিউ ড্রাইভে অবস্থিত লোটাস ফিউনারেল অ্যান্ড ক্রিমেশন সেন্টারে। ওই দিন সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রার্থনায় অংশ নেওয়া যাবে।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শাহরিয়ার মাহির খান এবং আরিয়ান আলম দীপ্তর জানাজা সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাদ জোহর স্কারবোরোর ১ স্টামফোর্ড স্কয়ার নর্থে মসজিদ আল-আবেদীনে অনুষ্ঠিত হবে।

নিহতদের মরদেহ বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে। নতুন দেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর জানান, এঞ্জেলা বাড়ৈ’র মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থাপনা করছে ‘লোটাস ফিউনারেল এবং ক্রিমেশন সেন্টার’ নামে একটি ফিউনারেল সার্ভিসেস প্রতিষ্ঠান।

তিনি জানান, লোটাস ফিউনারেলের অপারেশনাল ফিউনারেল ডিরেক্টর হারমিন্দর হানসি তাকে বলেছেন, আগামী সপ্তাহে তারা এঞ্জেলার মরদেহ বিমানে তুলে দিতে পারবেন বলে আশা করছেন। সোমবার কানাডায় সরকারি ছুটি এবং কিছু আনুষ্ঠানিকতা বাকি থাকায় এই মুহূর্তে সুনির্দিষ্টভাবে ফ্লাইটের তারিখ তারা বলতে পারছেন না। তবে একটা বুকিং দেওয়া আছে বলে উল্লেখ করলেও সেটি প্রকাশ করতে তিনি সম্মত হননি।

এঞ্জেলার পরিবারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি বা ২৫ ফেব্রুয়ারি টার্কিশ এয়ারওয়েজে এঞ্জেলার মরদেহ বাংলাদেশে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে। তার আগে ২৩ ফেব্রুয়ারি এঞ্জেলার বাবা ঢাকায় ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

শাহরিয়ার খান এবং আরিয়ান দীপ্তর মরদেহ অন্টারিওর করোনার অফিস থেকে ইকো ক্রিমেশন অ্যান্ড বারিয়াল সার্ভিসেস ইনকের কাছে দেওয়া হয়েছে। এই দুই জনের মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থাপনা করবে এই প্রতিষ্ঠান।

ইকো ক্রিমেশন অ্যান্ড বারিয়াল সার্ভিসেসের ফিউনারেল ডিরেক্টর নাথান রমাগনলি জানান, পরিবারের অনুমোদন না থাকায় তাদের মরদেহ কখন কীভাবে দেশে পাঠানো হবে এই ব্যাপারে তিনি কোনো তথ্য জানাতে পারছেন না।

অন্যদিকে জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী কুমার বিশ্বজিতের ছেলে নিবিড় কুমার দে’র শারীরিক অবস্থার একটু উন্নতি হলেও শঙ্কা এখনো কাটেনি। টরন্টোর সেন্ট মাইকেল হাসপাতালে চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি। চিকিৎসকরা তার শরীরের বিভিন্ন অংশ ক্যামেরার মাধ্যমে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন। কুমার বিশ্বজিৎ দম্পতি বর্তমানে টরন্টোতে অবস্থান করছেন।

এদিকে দুর্ঘটনায় সম্ভাবনাময় তিনটি তাজা প্রাণ ঝরে যাওয়া আর একজনের প্রাণ বাঁচানোর তীব্র লড়াইয়ের ঘটনা কেবল কানাডা নয়, সারা বিশ্বের বাংলাদেশিদের শোক বিহ্বল করেছে। পরিবারগুলো কি অবস্থার ভেতর দিয়ে যাচ্ছে সেটা ভেবে অসংখ্য মানুষ আহাজারি করছেন। এসময়ে ‘আন ফাউন্ডেড কোনো তথ্য’ সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করে নিজেদের অসংবেদনশীলতাকে নগ্ন না করার আহ্বান জানিয়েছেন কানাডার নতুন দেশ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক শওগাত আলী সাগর।