Dhaka , Wednesday, 7 June 2023

সোমবার রাতের ভূমিকম্পে তুরস্কে ৩ মৃত্যু, ধসে পড়া আটকা অনেকে

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:10:19 am, Tuesday, 21 February 2023
  • 17 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফের তুরস্কে আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। সোমবার স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৪ মিনিটে দক্ষিণাঞ্চলীয় হাতায় প্রদেশে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। কিছুক্ষণ পর ৫ দশমিক ৮ মাত্রার আফটারশকও অনুভূত হয়।

এতে তুরস্কে তিনজনের মৃত্যুর তথ্য জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুল্যেমান সোল্যু। এছাড়া দেশটিতে ২১৩ জন আহতের কথা জানা গেছে। অন্যদিকে সিরিয়ার আলেপ্পোতে ছয়জন আহতের তথ্য জানা গেছে।

এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল তুরস্কের হাতায় প্রদেশের দেফনে জেলায়। তুরস্ক ছাড়াও সোমবার রাতের ভূমিকম্প সিরিয়া, মিসর, জর্ডান, ইসরায়েল ও লেবাননে অনুভূত হয়েছে বলে জানা গেছে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পে ৪৪ হাজারের বেশি মৃত্যু হয়েছে এখন পর্যন্ত। ওই ভূমিকম্পে শুধু তুরস্কেই এক লাখ ১০ হাজারের বেশি ভবন বিধ্বস্ত হয়। ৬ ফেব্রুয়ারির ওই ভূমিকম্পের পর থেকে এ কয়দিনে ছয় হাজারের বেশি বার আফটারশক অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছে তুরস্ক কর্তৃপক্ষ।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

সোমবার রাতের ভূমিকম্পে তুরস্কে ৩ মৃত্যু, ধসে পড়া আটকা অনেকে

আপডেট টাইম : 08:10:19 am, Tuesday, 21 February 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফের তুরস্কে আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। সোমবার স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৪ মিনিটে দক্ষিণাঞ্চলীয় হাতায় প্রদেশে ৬ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। কিছুক্ষণ পর ৫ দশমিক ৮ মাত্রার আফটারশকও অনুভূত হয়।

এতে তুরস্কে তিনজনের মৃত্যুর তথ্য জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুল্যেমান সোল্যু। এছাড়া দেশটিতে ২১৩ জন আহতের কথা জানা গেছে। অন্যদিকে সিরিয়ার আলেপ্পোতে ছয়জন আহতের তথ্য জানা গেছে।

এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল তুরস্কের হাতায় প্রদেশের দেফনে জেলায়। তুরস্ক ছাড়াও সোমবার রাতের ভূমিকম্প সিরিয়া, মিসর, জর্ডান, ইসরায়েল ও লেবাননে অনুভূত হয়েছে বলে জানা গেছে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পে ৪৪ হাজারের বেশি মৃত্যু হয়েছে এখন পর্যন্ত। ওই ভূমিকম্পে শুধু তুরস্কেই এক লাখ ১০ হাজারের বেশি ভবন বিধ্বস্ত হয়। ৬ ফেব্রুয়ারির ওই ভূমিকম্পের পর থেকে এ কয়দিনে ছয় হাজারের বেশি বার আফটারশক অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছে তুরস্ক কর্তৃপক্ষ।