Dhaka , Thursday, 25 April 2024

ক্ষতিপূরণ হিসেবে সাড়ে ৭ কোটি টাকা পাচ্ছেন বাংলাদেশি শ্রমিক

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:11:35 am, Saturday, 11 March 2023
  • 36 বার

প্রবাস ডেস্ক: সিঙ্গাপুরে কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনায় পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ার চার বছরেরও বেশি সময় পরে সাত কোটি ৫৪ লাখ টাকা ( ৯ লাখ ৭১ হাজার সিঙ্গাপুরিয়ান ডলার) ক্ষতিপূরণ পেয়েছে এক বাংলাদেশি শ্রমিক। তাকে ওয়েস্টগেট টাওয়ারের সাবসিডিয়ারি ম্যানেজমেন্ট কর্পোরেশন বা এমসিএসটি থেকে এই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম স্ট্রেট টাইমস।

জনেদ নামের ৪৭ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর জুরং ইস্টের অফিস টাওয়ারে যান্ত্রিক ও বৈদ্যুতিক কক্ষে একটি ওভারহেড চিলার পরিদর্শন করতে গিয়েছিলেন। তিন দশমিক সাত মিটার উচ্চতার ওই চিলার থেকে তিনি পড়ে গিয়ে মেরুদণ্ডে আঘাত পান। দুর্ঘটনার পর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে ৯১ দিন এবং আলেকজান্দ্রা হাসপাতালে ১৫২ দিন থাকতে হয় জনেদকে। পরে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

নিয়োগকর্তা নিউটেক ইঞ্জিনিয়ারিংকে জনেদের পক্ষে প্রয়োজনীয় বীমা না থাকার জন্য এবং তার চিকিৎসা বিল পরিশোধে ব্যর্থতার জন্য আদালতে অভিযোগের মুখোমুখি হচ্ছেন।

ক্ষতিপূরণের অর্থ থেকে ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালকে এক লাখ ৪৯ হাজার ২৮১ দশমিক ২০ সিঙ্গাপুরিয়ান ডলার এবং আলেকজান্দ্রা হাসপাতালকে ৫৮ হাজার ৮১ ডলার বিল হিসেবে দেওয়া হবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

ক্ষতিপূরণ হিসেবে সাড়ে ৭ কোটি টাকা পাচ্ছেন বাংলাদেশি শ্রমিক

আপডেট টাইম : 08:11:35 am, Saturday, 11 March 2023

প্রবাস ডেস্ক: সিঙ্গাপুরে কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনায় পক্ষাঘাতগ্রস্ত হওয়ার চার বছরেরও বেশি সময় পরে সাত কোটি ৫৪ লাখ টাকা ( ৯ লাখ ৭১ হাজার সিঙ্গাপুরিয়ান ডলার) ক্ষতিপূরণ পেয়েছে এক বাংলাদেশি শ্রমিক। তাকে ওয়েস্টগেট টাওয়ারের সাবসিডিয়ারি ম্যানেজমেন্ট কর্পোরেশন বা এমসিএসটি থেকে এই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম স্ট্রেট টাইমস।

জনেদ নামের ৪৭ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর জুরং ইস্টের অফিস টাওয়ারে যান্ত্রিক ও বৈদ্যুতিক কক্ষে একটি ওভারহেড চিলার পরিদর্শন করতে গিয়েছিলেন। তিন দশমিক সাত মিটার উচ্চতার ওই চিলার থেকে তিনি পড়ে গিয়ে মেরুদণ্ডে আঘাত পান। দুর্ঘটনার পর ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে ৯১ দিন এবং আলেকজান্দ্রা হাসপাতালে ১৫২ দিন থাকতে হয় জনেদকে। পরে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

নিয়োগকর্তা নিউটেক ইঞ্জিনিয়ারিংকে জনেদের পক্ষে প্রয়োজনীয় বীমা না থাকার জন্য এবং তার চিকিৎসা বিল পরিশোধে ব্যর্থতার জন্য আদালতে অভিযোগের মুখোমুখি হচ্ছেন।

ক্ষতিপূরণের অর্থ থেকে ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালকে এক লাখ ৪৯ হাজার ২৮১ দশমিক ২০ সিঙ্গাপুরিয়ান ডলার এবং আলেকজান্দ্রা হাসপাতালকে ৫৮ হাজার ৮১ ডলার বিল হিসেবে দেওয়া হবে।