Dhaka , Monday, 17 June 2024

তবুও আশা দেখালেন সাকিব

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 07:54:35 am, Sunday, 12 March 2023
  • 35 বার

স্পোর্টস ডেস্ক: তিন দিন বাদেই মাঠে গড়াবে ঢাকা প্রিমিয়ায়র ডিভিশন ক্রিকেট ক্লাবের (ডিপিএডিসিএল)। জাতীয় দলের ইংল্যান্ড সিরিজের কারণে খুব একটা ডামাডোল নেই। এর মাঝেই দলগুলো নিজেদেরকে গুছিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। সেরে নিচ্ছে মাঠে নামার প্রস্তুতি।

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং লিমিটেড এবার দলে ভিড়িয়েছে একঝাঁক তারকা ক্রিকেটারকে। এই দলের হয়ে খেলবেন বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজের মতো তারকারা।

শনিবার তাদের নিয়ে বাংলাদেশ দলের টিম হোটেলে বৈঠক করে মোহামেডান কতৃপক্ষ। আগামী আসরে সাফল্য পেতে মরিয়া দলটি সবধরনের চেষ্টা করে যাচ্ছে। এই বৈঠকে গতবার শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে চ্যাম্পিয়ন করা ইমরুল কায়েসের হাতে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দিয়েছে মোহামেডান। আর কোচ আশিকুর রহমান।

তবে সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সাকিব খেলবেন কি না? বৈঠকের পর সাকিব-ইমরুলদের নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মোহামেডান কতৃপক্ষ। প্রথমেই সাকিবের কাছে প্রশ্ন ছিল, এই মৌসুমে তাকে পাওয়া যাবে কি না?

সাকিবের উত্তর, ‘ইচ্ছা আছে সবগুলো খেলার, বাকিটা দেখা যাক।’

জাতীয় দলের ব্যস্ততা, এরপর আছে আইপিএল। সাকিব না শুধু, মোহামেডান কতৃপক্ষও জানেন তাকে পাওয়াটা আসলে অসম্ভব। সাকিব তবুও আশা দেখালেন, “আমি যেটা বললাম চেষ্টা থাকবে সবগুলো ম্যাচ খেলার। জাতীয় দলের কমিটমেন্ট আছে, আইপিএলের কমিটমেন্ট একটা আছে, কিন্তু এর মাঝে মাঝে চেষ্টা করবো যথা সম্ভব টিমের সাথে থাকার এবং ম্যাচগুলো খেলোর।’

গত আসরে সাকিব শুরুতে মোহামেডানের ছিলেন। কিন্তু দল সুপারলিগে না উঠতে পারায় শেষ দিকে খেলেন লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে। সুপার লিগে ৪টি ম্যাচ খেলেছেন ক্লাবটির হয়ে। গতবার সুপার লিগে না উঠতে পারার পেছনে সাকিব জাতীয় দলের ব্যস্ততার কথাটাই বলেছেন। অর্থ্যাৎ দলের অধিকাংশ ক্রিকেটার সার্ভিস দিতে না পারায় সাদাকালো ক্লাবটি সুপার লিগে নিশ্চিত করতে পারেনি। আর এবার দল হয়ে সেটিই করার চেষ্টা করবেন তারা।

‘দেশের জন্য ভালো কিছু দেখেই মোহামেডান সুপার লিগে যেতে পারেনি। কারণ আমরা অনেকগুলো খেলোয়াড় ছিলাম যারা খেলতে পারিনি, সার্ভিসটা দিতে পারিনি। জাতীয় দলের দায়বদ্ধতার কারণে আমরা দিতে পারিনি। আশা করি আমরা এবার দল হয়ে খেলতে পারবো ওরকম একটা ফল আনতে পারবো যেটা মোহামেডান অনেক দিন ধরে চাচ্ছে’-বলছিলেন সাকিব।

এদিকে নেতৃত্ব পাওয়া ইমরুলের জানিয়েছেন তিনি চেষ্টা করবেন মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন করার জন্য। এ সময় তিনি গতবার শেখ জামালকে চ্যাম্পিয়ন করার কথা তুলে ধরেন।

ইমরুল বলেন, ‘প্রথমত ধন্যবাদ জানাই মোহামেডান ক্লাবকে আমাকে এতবড় একটা দায়িত্ব দিয়েছে। মোহামেডানের মতো একটা ক্লাবের অধিনায়কত্ব করা অনেক বড় সম্মানের। আমি চেষ্টা করবো সম্মানটা ধরে রাখার। গত বছর আমি যে টিমে খেলেছিলাম আমাদের কমিটমেন্ট ছিল আমরা যেন চ্যাম্পিয়ন হতে পারি। ইনশাল্লাহ একইভাবে আমরা চেষ্টা করব যে এ বছর মোহামেডান যেন ভিন্ন একটা ফল করে এবং আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারি।’

মোহামেডান সবশেষ ঢাকা লিগের শিরোপা জিতেছে ২০০৯-১০ মৌসুমে। এক যুগ ধরে শিরোপা খরায় ভুগছে দেশের ক্রিকেটের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। এবারও বড় বড় নাম নিয়ে মাঠে নামছে সাদাকালো শিবির, সাকিব-ইমরুলরা দিচ্ছেন আসার বাণী, শেষ পর্যন্ত শিরোপার দেখা পাবেতো তারা?

মোহামেডানের এই মিটিংয়ের পর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হয় ঢাকা লিগের ট্রফি উন্মোচন। অংশনগ্রহণকারী ক্লাবগুলোর অধিনায়ক ও প্রতিনিধিদের নিয়ে এই ট্রফি উন্মোচিত হয়। আগামী ১৫ মার্চ থেকে মাঠে গড়াবে এবারের লিগ।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

তবুও আশা দেখালেন সাকিব

আপডেট টাইম : 07:54:35 am, Sunday, 12 March 2023

স্পোর্টস ডেস্ক: তিন দিন বাদেই মাঠে গড়াবে ঢাকা প্রিমিয়ায়র ডিভিশন ক্রিকেট ক্লাবের (ডিপিএডিসিএল)। জাতীয় দলের ইংল্যান্ড সিরিজের কারণে খুব একটা ডামাডোল নেই। এর মাঝেই দলগুলো নিজেদেরকে গুছিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে। সেরে নিচ্ছে মাঠে নামার প্রস্তুতি।

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং লিমিটেড এবার দলে ভিড়িয়েছে একঝাঁক তারকা ক্রিকেটারকে। এই দলের হয়ে খেলবেন বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজের মতো তারকারা।

শনিবার তাদের নিয়ে বাংলাদেশ দলের টিম হোটেলে বৈঠক করে মোহামেডান কতৃপক্ষ। আগামী আসরে সাফল্য পেতে মরিয়া দলটি সবধরনের চেষ্টা করে যাচ্ছে। এই বৈঠকে গতবার শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে চ্যাম্পিয়ন করা ইমরুল কায়েসের হাতে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দিয়েছে মোহামেডান। আর কোচ আশিকুর রহমান।

তবে সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সাকিব খেলবেন কি না? বৈঠকের পর সাকিব-ইমরুলদের নিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মোহামেডান কতৃপক্ষ। প্রথমেই সাকিবের কাছে প্রশ্ন ছিল, এই মৌসুমে তাকে পাওয়া যাবে কি না?

সাকিবের উত্তর, ‘ইচ্ছা আছে সবগুলো খেলার, বাকিটা দেখা যাক।’

জাতীয় দলের ব্যস্ততা, এরপর আছে আইপিএল। সাকিব না শুধু, মোহামেডান কতৃপক্ষও জানেন তাকে পাওয়াটা আসলে অসম্ভব। সাকিব তবুও আশা দেখালেন, “আমি যেটা বললাম চেষ্টা থাকবে সবগুলো ম্যাচ খেলার। জাতীয় দলের কমিটমেন্ট আছে, আইপিএলের কমিটমেন্ট একটা আছে, কিন্তু এর মাঝে মাঝে চেষ্টা করবো যথা সম্ভব টিমের সাথে থাকার এবং ম্যাচগুলো খেলোর।’

গত আসরে সাকিব শুরুতে মোহামেডানের ছিলেন। কিন্তু দল সুপারলিগে না উঠতে পারায় শেষ দিকে খেলেন লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে। সুপার লিগে ৪টি ম্যাচ খেলেছেন ক্লাবটির হয়ে। গতবার সুপার লিগে না উঠতে পারার পেছনে সাকিব জাতীয় দলের ব্যস্ততার কথাটাই বলেছেন। অর্থ্যাৎ দলের অধিকাংশ ক্রিকেটার সার্ভিস দিতে না পারায় সাদাকালো ক্লাবটি সুপার লিগে নিশ্চিত করতে পারেনি। আর এবার দল হয়ে সেটিই করার চেষ্টা করবেন তারা।

‘দেশের জন্য ভালো কিছু দেখেই মোহামেডান সুপার লিগে যেতে পারেনি। কারণ আমরা অনেকগুলো খেলোয়াড় ছিলাম যারা খেলতে পারিনি, সার্ভিসটা দিতে পারিনি। জাতীয় দলের দায়বদ্ধতার কারণে আমরা দিতে পারিনি। আশা করি আমরা এবার দল হয়ে খেলতে পারবো ওরকম একটা ফল আনতে পারবো যেটা মোহামেডান অনেক দিন ধরে চাচ্ছে’-বলছিলেন সাকিব।

এদিকে নেতৃত্ব পাওয়া ইমরুলের জানিয়েছেন তিনি চেষ্টা করবেন মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন করার জন্য। এ সময় তিনি গতবার শেখ জামালকে চ্যাম্পিয়ন করার কথা তুলে ধরেন।

ইমরুল বলেন, ‘প্রথমত ধন্যবাদ জানাই মোহামেডান ক্লাবকে আমাকে এতবড় একটা দায়িত্ব দিয়েছে। মোহামেডানের মতো একটা ক্লাবের অধিনায়কত্ব করা অনেক বড় সম্মানের। আমি চেষ্টা করবো সম্মানটা ধরে রাখার। গত বছর আমি যে টিমে খেলেছিলাম আমাদের কমিটমেন্ট ছিল আমরা যেন চ্যাম্পিয়ন হতে পারি। ইনশাল্লাহ একইভাবে আমরা চেষ্টা করব যে এ বছর মোহামেডান যেন ভিন্ন একটা ফল করে এবং আমরা চ্যাম্পিয়ন হতে পারি।’

মোহামেডান সবশেষ ঢাকা লিগের শিরোপা জিতেছে ২০০৯-১০ মৌসুমে। এক যুগ ধরে শিরোপা খরায় ভুগছে দেশের ক্রিকেটের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। এবারও বড় বড় নাম নিয়ে মাঠে নামছে সাদাকালো শিবির, সাকিব-ইমরুলরা দিচ্ছেন আসার বাণী, শেষ পর্যন্ত শিরোপার দেখা পাবেতো তারা?

মোহামেডানের এই মিটিংয়ের পর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হয় ঢাকা লিগের ট্রফি উন্মোচন। অংশনগ্রহণকারী ক্লাবগুলোর অধিনায়ক ও প্রতিনিধিদের নিয়ে এই ট্রফি উন্মোচিত হয়। আগামী ১৫ মার্চ থেকে মাঠে গড়াবে এবারের লিগ।