Dhaka , Tuesday, 28 May 2024

সিঙ্গাপুর প্রবাসী ডা. মুনতাসির মান্নানের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:05:35 am, Wednesday, 15 March 2023
  • 44 বার

প্রবাস ডেস্ক: সিঙ্গাপুর প্রবাসীদের কাছে একটি পরিচিত নাম মুনতাসির মান্নান চৌধুরী। তিনি সিঙ্গাপুরে কর্মরত বাংলাদেশি একজন ডাক্তার। সিঙ্গাপুরের সেংকাং জেনারেল হাসপাতালে অর্থোপেডিক স্পেশালিস্ট হিসেবে দক্ষতা এবং সুনামের সাথে কাজ করছেন মুনতাসির মান্নান।

বাংলাদেশি একজন ডাক্তার হিসেবে তিনি প্রবাসী রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের নিয়ে চিন্তা করেন। তিনি মনে করেন, সিঙ্গাপুরসহ সারা বিশ্বের প্রবাসীরা ভালো থাকলে সুস্থ থাকলে দেশের রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে, যা দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই চিন্তা থেকেই সিঙ্গাপুরে প্রবাসীদের পাশে থাকার এবং বিনামূল্যে সেবা দেওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি।

ডা. মুনতাসির করোনার সময় থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন ডরমিটরিতে গিয়ে করোনা মোকাবিলায় সাহস যুগিয়ে পাঁশে থেকেছেন। এছাড়া ফেসবুক লাইভে বিভিন্ন সময় সিঙ্গাপুরে কর্মরত প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন। তখন থেকেই সিঙ্গাপুর প্রবাসী অনেক মানুষের কাছে প্রিয় মানুষ হয়ে ওঠেন তিনি।

সম্প্রতি তিনি একটি টিম তৈরি করেছেন, যারা সিঙ্গাপুরের বিভিন্ন ডরমিটরিতে গিয়ে বাংলাদেশি এবং ইন্ডিয়ান প্রবাসীদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। প্রতি মাসে ১/২টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনে তারা চেষ্টা করেন ডরমিটরিতে গিয়ে প্রবাসীদের এই চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রাখতে।

তিনি বলেন, আমরা কয়েকজন একটি টিমে কাজ করছি। আমাদের টিম লিডারদের মধ্যে রয়েছেন ডা. হামিদ রহমতুল্লাহ বিন আব্দুর রাজ্জাক ও ডা. তৌসিফ কবির। সেবামূলক এই কার্যক্রমের সাথে আরও যুক্ত আছেন তার ছেলে দেয়ান, ইহতিমাম, ডাক্তার সন্দীপ, ইব্রাহিম, আল আমিন, ইমাম ও রাজু। আগামীতে আরও কয়েকজন ডাক্তার এই মানবিক কাজে যুক্ত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ডা. মুনতাসির বলেন, এই মানবিক কাজটি অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে আমরা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে অভিবাসী কর্মীদের ডরমিটরি পরিদর্শন করার কার্যক্রম শুরু করেছি। আমাদের উদ্দেশ্য প্রতি মাসে অন্তত একটি রবিবার সন্ধ্যায় ডরমিটরি পরিদর্শন করা এবং চিকিৎসা সেবা বা পরামর্শ প্রদান করা। আমরা গত ৪ মাসে ৩০০টিরও বেশি অভিবাসী ভাইদের সেবা প্রদান করতে পেরেছি।

এই প্রকল্পের অংশ হিসেবে বরিবার সিঙ্গাপুরের জালান পাপানের অ্যাভেরি লজ ডরমিটরিতে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়, যেখানে ১০০ জনের বেশি অভিবাসী শ্রমিকরা সেবা গ্রহণ করেছেন। এর আগে আরও চারটি ডরমিটরিতে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

সিঙ্গাপুর প্রবাসী ডা. মুনতাসির মান্নানের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান

আপডেট টাইম : 08:05:35 am, Wednesday, 15 March 2023

প্রবাস ডেস্ক: সিঙ্গাপুর প্রবাসীদের কাছে একটি পরিচিত নাম মুনতাসির মান্নান চৌধুরী। তিনি সিঙ্গাপুরে কর্মরত বাংলাদেশি একজন ডাক্তার। সিঙ্গাপুরের সেংকাং জেনারেল হাসপাতালে অর্থোপেডিক স্পেশালিস্ট হিসেবে দক্ষতা এবং সুনামের সাথে কাজ করছেন মুনতাসির মান্নান।

বাংলাদেশি একজন ডাক্তার হিসেবে তিনি প্রবাসী রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের নিয়ে চিন্তা করেন। তিনি মনে করেন, সিঙ্গাপুরসহ সারা বিশ্বের প্রবাসীরা ভালো থাকলে সুস্থ থাকলে দেশের রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে, যা দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সেই চিন্তা থেকেই সিঙ্গাপুরে প্রবাসীদের পাশে থাকার এবং বিনামূল্যে সেবা দেওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তিনি।

ডা. মুনতাসির করোনার সময় থেকে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন ডরমিটরিতে গিয়ে করোনা মোকাবিলায় সাহস যুগিয়ে পাঁশে থেকেছেন। এছাড়া ফেসবুক লাইভে বিভিন্ন সময় সিঙ্গাপুরে কর্মরত প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করেছেন। তখন থেকেই সিঙ্গাপুর প্রবাসী অনেক মানুষের কাছে প্রিয় মানুষ হয়ে ওঠেন তিনি।

সম্প্রতি তিনি একটি টিম তৈরি করেছেন, যারা সিঙ্গাপুরের বিভিন্ন ডরমিটরিতে গিয়ে বাংলাদেশি এবং ইন্ডিয়ান প্রবাসীদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। প্রতি মাসে ১/২টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনে তারা চেষ্টা করেন ডরমিটরিতে গিয়ে প্রবাসীদের এই চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রাখতে।

তিনি বলেন, আমরা কয়েকজন একটি টিমে কাজ করছি। আমাদের টিম লিডারদের মধ্যে রয়েছেন ডা. হামিদ রহমতুল্লাহ বিন আব্দুর রাজ্জাক ও ডা. তৌসিফ কবির। সেবামূলক এই কার্যক্রমের সাথে আরও যুক্ত আছেন তার ছেলে দেয়ান, ইহতিমাম, ডাক্তার সন্দীপ, ইব্রাহিম, আল আমিন, ইমাম ও রাজু। আগামীতে আরও কয়েকজন ডাক্তার এই মানবিক কাজে যুক্ত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ডা. মুনতাসির বলেন, এই মানবিক কাজটি অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে আমরা গত বছরের ডিসেম্বর থেকে অভিবাসী কর্মীদের ডরমিটরি পরিদর্শন করার কার্যক্রম শুরু করেছি। আমাদের উদ্দেশ্য প্রতি মাসে অন্তত একটি রবিবার সন্ধ্যায় ডরমিটরি পরিদর্শন করা এবং চিকিৎসা সেবা বা পরামর্শ প্রদান করা। আমরা গত ৪ মাসে ৩০০টিরও বেশি অভিবাসী ভাইদের সেবা প্রদান করতে পেরেছি।

এই প্রকল্পের অংশ হিসেবে বরিবার সিঙ্গাপুরের জালান পাপানের অ্যাভেরি লজ ডরমিটরিতে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়, যেখানে ১০০ জনের বেশি অভিবাসী শ্রমিকরা সেবা গ্রহণ করেছেন। এর আগে আরও চারটি ডরমিটরিতে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।