Dhaka , Tuesday, 23 April 2024

বাহরাইনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 02:14:59 pm, Monday, 27 March 2023
  • 43 বার

প্রবাস ডেস্ক: বাহরাইনে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও আনন্দ মুখর পরিবেশে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের ৫২তম বার্ষিকী উদযাপন করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

স্থানীয় সময় রবিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৯টায় দেশটির রাজধানী মানামা বাংলাদেশ দূতাবাস প্রাঙ্গনে বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ ও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচির সূচনা করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত, মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ, উন্মুক্ত আলোচনা এবং মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রর্দশন করা হয়।

রাষ্ট্রদূত ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম তার বক্তব্যের শুরুতে গভীর শ্রদ্ধার সাথে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ও মুক্তিযুদ্ধে যারা শাহাদাত বরণ করেছেন সেই সকল বীর শহিদদেরকে এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদেরকে স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মত্যাগ, অপরিসীম সাহস এবং সঠিক দিকনির্দেশনার ফসল হিসেবে আমরা পেয়েছি স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। জাতির পিতার নির্দেশিত পথ অনুসরণ করে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত ও স্মার্ট রাষ্ট্রে রুপান্তর করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, দারিদ্র্য বিমোচন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, মানবসম্পদ উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়নসহ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যের শেষে প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশিদেরকে দল ও মতের বিবেদ ভূলে একযোগে জাতির পিতার স্বপ্নের উন্নত, সমৃদ্ধ ও আত্মমর্যাদাশীল ‘সোনার বাংলাদেশ’ তথা প্রধানমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান।

পরিশেষে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের যারা শাহাদাত বরণ করেছে এবং বাঙালির স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনের সকল পর্যায়ে ঐতিহাসিক ভূমিকা পালনকারী সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

বাহরাইনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

আপডেট টাইম : 02:14:59 pm, Monday, 27 March 2023

প্রবাস ডেস্ক: বাহরাইনে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও আনন্দ মুখর পরিবেশে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের ৫২তম বার্ষিকী উদযাপন করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

স্থানীয় সময় রবিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৯টায় দেশটির রাজধানী মানামা বাংলাদেশ দূতাবাস প্রাঙ্গনে বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ ও দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে দিনের কর্মসূচির সূচনা করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত, মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ, উন্মুক্ত আলোচনা এবং মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রর্দশন করা হয়।

রাষ্ট্রদূত ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম তার বক্তব্যের শুরুতে গভীর শ্রদ্ধার সাথে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ও মুক্তিযুদ্ধে যারা শাহাদাত বরণ করেছেন সেই সকল বীর শহিদদেরকে এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদেরকে স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আত্মত্যাগ, অপরিসীম সাহস এবং সঠিক দিকনির্দেশনার ফসল হিসেবে আমরা পেয়েছি স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ। জাতির পিতার নির্দেশিত পথ অনুসরণ করে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত ও স্মার্ট রাষ্ট্রে রুপান্তর করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরও বলেন, দারিদ্র্য বিমোচন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, মানবসম্পদ উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়নসহ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যের শেষে প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশিদেরকে দল ও মতের বিবেদ ভূলে একযোগে জাতির পিতার স্বপ্নের উন্নত, সমৃদ্ধ ও আত্মমর্যাদাশীল ‘সোনার বাংলাদেশ’ তথা প্রধানমন্ত্রী ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান।

পরিশেষে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের যারা শাহাদাত বরণ করেছে এবং বাঙালির স্বাধীনতা ও স্বাধিকার আন্দোলনের সকল পর্যায়ে ঐতিহাসিক ভূমিকা পালনকারী সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।