Dhaka , Monday, 15 July 2024

সুদানফেরত কর্মীদের পুনর্বাসনে সহযোগিতার সিদ্ধান্ত

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:23:09 am, Tuesday, 16 May 2023
  • 56 বার

নিউজ ডেস্ক: সুদানে গৃহযুদ্ধের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সরকার দেশটি থেকে এখন পর্যন্ত সাত শতাধিক প্রবাসী কর্মীকে দেশে প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা করেছে। দেশে ফেরত আসা এসব কর্মীদের পুনর্বাসনে সহযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রত্যাগত বাংলাদেশি কর্মীদের আর্থসামাজিক পুনর্বাসনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে রোববার একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠকে আরও যেসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে-

যেসব কর্মী দেশে ব্যবসা-বাণিজ্য করতে আগ্রহী তাদের বাংলাদেশ ব্যাংকের বিধান প্রতিপালন সাপেক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক হতে বিনা জামানতে ৩ লাখ টাকা, সহ-জামানতে ৫ লাখ টাকা এবং জামানতসহ ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ ঋণ প্রদান করা হবে;

সুদানফেরত যেসব কর্মী পুনরায় বিদেশ যেতে চান, প্রয়োজনীয় যোগ্যতা সাপেক্ষে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাদের পছন্দের দেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রদান করা হবে। বিশেষ করে সরকারি রিক্রুটিং এজেন্সি বোয়েসেল জর্ডান, দক্ষিণ কোরিয়া এবং অন্য যেসব দেশে কর্মী পাঠায় সেখানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাদের নেওয়া হবে;

আগ্রহী কর্মীদের বিনামূল্যে দক্ষতা উন্নয়ন/উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ/কাউন্সেলিং প্রদান করা হবে।

বৈঠকে মন্ত্রী বলেন, পুনর্বাসনের লক্ষ্যে গৃহীত উদ্যোগসমূহ কার্যকরভাবে বাস্তবায়নের জন্য প্রত্যাগত কর্মীদের সাথে যোগাযোগপূর্বক আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে একটি তথ্যভাণ্ডার প্রস্তুত করা হবে। এ বিষয়ে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড/ সংশ্লিষ্ট জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ প্রত্যাগত কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করবেন। এ ব্যাপারে সুদান প্রত্যাগত সকলকে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, বিস্তারিত তথ্যের জন্য প্রত্যাগত কর্মীদের সংশ্লিষ্ট জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে (DEMO) যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। DEMO-এর ঠিকানা www.bmet.gov.bd-তে পাওয়া যাবে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খায়রুল আলম, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক হামিদুর রহমান, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো’র মহাপরিচালক শহিদুল আলম এনডিসি, বোয়েসেল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব সাজ্জাদ হোসেন ভূঞা, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মজিবর রহমান প্রমুখ।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

সুদানফেরত কর্মীদের পুনর্বাসনে সহযোগিতার সিদ্ধান্ত

আপডেট টাইম : 08:23:09 am, Tuesday, 16 May 2023

নিউজ ডেস্ক: সুদানে গৃহযুদ্ধের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ সরকার দেশটি থেকে এখন পর্যন্ত সাত শতাধিক প্রবাসী কর্মীকে দেশে প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা করেছে। দেশে ফেরত আসা এসব কর্মীদের পুনর্বাসনে সহযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রত্যাগত বাংলাদেশি কর্মীদের আর্থসামাজিক পুনর্বাসনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে রোববার একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠকে আরও যেসব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছে-

যেসব কর্মী দেশে ব্যবসা-বাণিজ্য করতে আগ্রহী তাদের বাংলাদেশ ব্যাংকের বিধান প্রতিপালন সাপেক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক হতে বিনা জামানতে ৩ লাখ টাকা, সহ-জামানতে ৫ লাখ টাকা এবং জামানতসহ ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ ঋণ প্রদান করা হবে;

সুদানফেরত যেসব কর্মী পুনরায় বিদেশ যেতে চান, প্রয়োজনীয় যোগ্যতা সাপেক্ষে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাদের পছন্দের দেশে যাওয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রদান করা হবে। বিশেষ করে সরকারি রিক্রুটিং এজেন্সি বোয়েসেল জর্ডান, দক্ষিণ কোরিয়া এবং অন্য যেসব দেশে কর্মী পাঠায় সেখানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে তাদের নেওয়া হবে;

আগ্রহী কর্মীদের বিনামূল্যে দক্ষতা উন্নয়ন/উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ/কাউন্সেলিং প্রদান করা হবে।

বৈঠকে মন্ত্রী বলেন, পুনর্বাসনের লক্ষ্যে গৃহীত উদ্যোগসমূহ কার্যকরভাবে বাস্তবায়নের জন্য প্রত্যাগত কর্মীদের সাথে যোগাযোগপূর্বক আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে একটি তথ্যভাণ্ডার প্রস্তুত করা হবে। এ বিষয়ে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড/ সংশ্লিষ্ট জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ প্রত্যাগত কর্মীদের সাথে যোগাযোগ করবেন। এ ব্যাপারে সুদান প্রত্যাগত সকলকে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন মন্ত্রী।

উল্লেখ্য, বিস্তারিত তথ্যের জন্য প্রত্যাগত কর্মীদের সংশ্লিষ্ট জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে (DEMO) যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। DEMO-এর ঠিকানা www.bmet.gov.bd-তে পাওয়া যাবে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খায়রুল আলম, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক হামিদুর রহমান, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো’র মহাপরিচালক শহিদুল আলম এনডিসি, বোয়েসেল’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব সাজ্জাদ হোসেন ভূঞা, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মজিবর রহমান প্রমুখ।