Dhaka , Saturday, 22 June 2024

মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদে চাঁদপুরের ফাইয়াজ

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:31:40 am, Wednesday, 17 May 2023
  • 37 বার

মালয়েশিয়া ডেস্ক: মালয়েশিয়ার স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় মাহসা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ কাউন্সিল-২০২৩ নির্বাচনে একমাত্র বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছেন এসএম ফাইয়াজ আলম।

প্রায় সাত হাজার শিক্ষার্থীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ‘হেড অব ইন্টারন্যাশনাল ব্যুরো’ পদে জয়লাভ করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির আইটি বিভাগে অধ্যয়নরত এই বাংলাদেশি শিক্ষার্থী।

গত সোমবার (১৫ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের হিউম্যানিটি বিল্ডিংয়ে স্পাইন লেভেলের ২য় তলায় স্টুডেন্টস সেন্ট্রাল মিলনায়তনে বিশ্ববিদ্যালয়টির হেড অব স্টুডেন্ট সেন্ট্রাল মিস হেমা এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট হেড মিস ফাতিহা ইরা নির্বাচিত ক্যান্ডিডেটদের নাম ঘোষণা করেন।

মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বশির ইবনে জাফর নবনির্বাচিত ফাইয়াজের বিষয়ে মন্তব্য করে বলেন, আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি- ফাইয়াজের এ অর্জনটি তার নিজের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে কর্মজীবনে এখানকার অর্জিত অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা তাকে অনেক বেশি এগিয়ে রাখবে।

তাছাড়া নিঃসন্দেহে তার এই অর্জন পুরো বাংলাদেশের মানুষের জন্য একটি গর্বের বিষয় যে, সে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তার নিজের দেশকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার সুযোগ পাচ্ছে তার নেতৃত্বের দ্বারা। বিদেশে পড়তে আসলে শিক্ষার্থীদের এমনই হওয়া উচিত। তারা নিজের দেশকে যেমন বিশ্ববাসীর কাছে এগিয়ে রাখবে তেমনই নিজেকেও প্রতিষ্ঠানের সেরা জায়গাটিতে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে।

প্রসঙ্গত, এসএম ফাইয়াজ আলম ২০২১ সালে বাংলাদেশের চাঁদপুর আলামিন একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পর উচ্চশিক্ষায় মালয়েশিয়ায় আসেন। তার বাবা মুহা. খাইরুল আলম একজন সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, এক্সট্রাকারিকুলার এক্টিভিটিস এবং আগামীর যোগ্য নেতৃত্ব গড়ার লক্ষ্যে মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সকল দেশের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রতি বছর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

এ বছর মোট ১২টি ভিন্ন ভিন্ন পদের জন্য ৫০ জন প্রতিদ্বন্দ্বী নির্বাচনে প্রার্থী হয়। এর মধ্য থেকে অনলাইন এবং সশরীরে ভোটগ্রহণের মাধ্যমে সর্বোচ্চ প্রাপ্ত ভোটের ভিত্তিতে ১২টি পদের জন্য ১২ জনকে নির্বাচিত ঘোষণা করে ইলেকটোরাল কমিটি। আগামী এক বছর বিশ্ববিদ্যালয়টির বিভিন্ন কাজে শিক্ষার্থীদের হয়ে কাজ করবে এ কমিটি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদে চাঁদপুরের ফাইয়াজ

আপডেট টাইম : 08:31:40 am, Wednesday, 17 May 2023

মালয়েশিয়া ডেস্ক: মালয়েশিয়ার স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয় মাহসা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ কাউন্সিল-২০২৩ নির্বাচনে একমাত্র বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়েছেন এসএম ফাইয়াজ আলম।

প্রায় সাত হাজার শিক্ষার্থীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ‘হেড অব ইন্টারন্যাশনাল ব্যুরো’ পদে জয়লাভ করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির আইটি বিভাগে অধ্যয়নরত এই বাংলাদেশি শিক্ষার্থী।

গত সোমবার (১৫ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের হিউম্যানিটি বিল্ডিংয়ে স্পাইন লেভেলের ২য় তলায় স্টুডেন্টস সেন্ট্রাল মিলনায়তনে বিশ্ববিদ্যালয়টির হেড অব স্টুডেন্ট সেন্ট্রাল মিস হেমা এবং অ্যাসিস্ট্যান্ট হেড মিস ফাতিহা ইরা নির্বাচিত ক্যান্ডিডেটদের নাম ঘোষণা করেন।

মালয়েশিয়ার মাহসা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বশির ইবনে জাফর নবনির্বাচিত ফাইয়াজের বিষয়ে মন্তব্য করে বলেন, আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে বলতে পারি- ফাইয়াজের এ অর্জনটি তার নিজের জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে কর্মজীবনে এখানকার অর্জিত অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা তাকে অনেক বেশি এগিয়ে রাখবে।

তাছাড়া নিঃসন্দেহে তার এই অর্জন পুরো বাংলাদেশের মানুষের জন্য একটি গর্বের বিষয় যে, সে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তার নিজের দেশকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার সুযোগ পাচ্ছে তার নেতৃত্বের দ্বারা। বিদেশে পড়তে আসলে শিক্ষার্থীদের এমনই হওয়া উচিত। তারা নিজের দেশকে যেমন বিশ্ববাসীর কাছে এগিয়ে রাখবে তেমনই নিজেকেও প্রতিষ্ঠানের সেরা জায়গাটিতে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে।

প্রসঙ্গত, এসএম ফাইয়াজ আলম ২০২১ সালে বাংলাদেশের চাঁদপুর আলামিন একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাসের পর উচ্চশিক্ষায় মালয়েশিয়ায় আসেন। তার বাবা মুহা. খাইরুল আলম একজন সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, এক্সট্রাকারিকুলার এক্টিভিটিস এবং আগামীর যোগ্য নেতৃত্ব গড়ার লক্ষ্যে মালয়েশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সকল দেশের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রতি বছর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

এ বছর মোট ১২টি ভিন্ন ভিন্ন পদের জন্য ৫০ জন প্রতিদ্বন্দ্বী নির্বাচনে প্রার্থী হয়। এর মধ্য থেকে অনলাইন এবং সশরীরে ভোটগ্রহণের মাধ্যমে সর্বোচ্চ প্রাপ্ত ভোটের ভিত্তিতে ১২টি পদের জন্য ১২ জনকে নির্বাচিত ঘোষণা করে ইলেকটোরাল কমিটি। আগামী এক বছর বিশ্ববিদ্যালয়টির বিভিন্ন কাজে শিক্ষার্থীদের হয়ে কাজ করবে এ কমিটি।