Dhaka , Wednesday, 29 May 2024

স্পেনে ৫ লাখ অভিবাসীকে বৈধতা দিতে সংসদে বিল উত্থাপন

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:07:18 am, Thursday, 25 May 2023
  • 40 বার

প্রবাস ডেস্ক: স্পেনে অনিয়মিত অভিবাসী শ্রমিকদের বৈধতা দিতে ‘অ্যাসেনসিয়াল’ নামের কর্মসূচির আওতায় গণস্বাক্ষর অভিযান চালিয়েছে ৮০০টিরও বেশি এনজিও, অভিবাসন সংস্থা ও সমিতি। এই সম্মিলিত উদ্যোগের ফলে ১০ মে দেশটির সংসদে পাঁচ লাখ অনিয়মিত অভিবাসীকে বৈধতা দিতে বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে স্পেনজুড়ে অভূতপূর্ব সাড়া মেলে। দেশটির মোট ৭০ লাখ নাগরিক এই কর্মসূচিতে সই করেছে। জনপ্রিয় এই আইনি উদ্যোগের কারণে পাঁচ লাখ অভিবাসী শ্রমিকের নিয়মিতকরণের জন্য স্প্যানিশ পার্লামেন্টে বিল পেশ করা সম্ভব হয়েছে।

পর্যাপ্ত সই সংগ্রহ করার জন্য বেশ কয়েক মাস ধরে এই উদ্যোগের সমর্থনে প্রচার চালায় বিভিন্ন অধিকার সংস্থা ও এনজিওগুলো।

স্প্যানিশ সংবিধান বিশেষজ্ঞ নিকোলাস পাউথে বলেন, স্প্যানিশ সংবিধানের ৮৭ এর ৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কমপক্ষে ৫০ লাখ নাগরিকের স্বাক্ষর থাকলে একটি নাগরিক বিল সংসদে আলোচনায় আশার সুযোগ রয়েছে।

‘অভিবাসন নীতিতে ভূমিকা রাখতে চাই’

গণস্বাক্ষরের সমর্থনে শুরু হওইয়া অনলাইন প্রচারাভিযানটি গত ডিসেম্বরে শেষ হয়। এনজিও ও সংস্থাগুলো যৌথ প্ল্যাটফর্মের মুখপাত্র ১০ মে, বুধবার ৭০ লাখেরও বেশি সই নিয়ে সংসদের সামনে বিলটি পেশ করেন।

এ সময় মুখপাত্র বলেন, বহু লোক অনিয়মিত পরিস্থিতিতে বসবাস করছেন। তারা কোনোভাবেই বৈধ হতে পারছে না। মুখপাত্রদের একজন লামিন সার। সেনেগালের বংশোদ্ভূত এই ব্যক্তি অনথিভুক্ত অভিবাসীদের জন্য দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছেন।

তিনি স্প্যানিশ সংবাদপত্র এল দিয়ারিওকে বলেন, অভিবাসীদের মধ্যে এমন কিছু পরিবার রয়েছে যাদের শিশুরা স্বাস্থ্য বা শিক্ষা পরিষেবার সুযোগ নিতে পারছে না। এই বিকৃত ব্যবস্থা তাদের চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে রেখেছে।

এই প্রতিনিধি আরও দাবি করেন, আমরা আরও একটি নির্বাচনী বছর বিনিময়ের হাতিয়ার হতে চাই না। আমরা রাজনীতির যৌক্তিক বিষয় হতে চাই। অভিবাসন নীতিতে এবং জনসাধারণের নীতিতে ভূমিকা রাখতে চাই। যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে জড়িত।

অবসরে যাচ্ছেন হাজারো স্প্যানিশ

স্প্যানিশ পরিসংখ্যান দপ্তর বা ইনস্টিটিউট অব স্ট্যাটিস্টিকস (আইএনই) অনুসারে, গত ২০ বছরে স্পেনে বিদেশি কর্মীর সংখ্যা ১৪ লাখ থেকে বেড়ে ২৪ লাখে পৌঁছেছে। অর্থাৎ প্রতি বছর গড়ে ৭০ হাজার বিদেশি শ্রমিক স্পেনের শ্রমখাতে যুক্ত হয়েছে।

বর্তমান ক্ষমতাসীন পেড্রো সানচেজের সরকারের মতে, এই পরিসংখ্যান চাহিদা অনুযায়ী একটি প্রয়োজনীয় উপস্থিতি। কারণ অবসরে যাওয়া বয়স্ক জনসংখ্যার চাপ সামাল দিতে প্রতি বছর কমপক্ষে দুই লাখ অভিবাসীকে স্বাগত জানাতে হবে স্পেনে।

কিন্তু দেশটিতে অনিয়মিতদের নিয়মিতকরণের শর্ত খুবই জটিল। বৈধতা পেতে অভিবাসীদের অবশ্যই প্রমাণ করতে হয়, তারা কমপক্ষে তিন বছর ধরে স্পেনে আছেন। স্থানীয় পৌরসভা থেকে জারি করা আবাসনের একটি প্রশংসাপত্রের মাধ্যমে এটি প্রমাণ করতে হয়।

এছাড়া, প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৪০ ঘণ্টার জন্য এক বছরের কাজের চুক্তি জমা দেওয়াও অন্যতম শর্ত। তবে বেশিরভাগ অনিয়মিতদের পক্ষে এটি যোগাড় করা কঠিন। কারণ তাদের পক্ষে বৈধ কাজ খুঁজে পাওয়া প্রায় অসম্ভব। আবার খুঁজে পেলেও সেটি সপ্তাহে ৪০ ঘণ্টা হয় না।

বৈধতার নানা উদ্যোগ

২০২২ সালের জুলাইয়ে স্পেনের অভিবাসন বিষয়কমন্ত্রী জোসে লুইস এসক্রিভা জানিয়েছিলেন, অনিয়মিত পরিস্থিতিতে স্পেনে আসা ব্যক্তিদের বৈধতা পেতে গড়ে সাড়ে সাত বছর পর্যন্ত সময় লাগে।

এই ধীরগতি কমানোর লক্ষ্যে স্পেন সম্প্রতি বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। ২০২২ সালের আগস্টে স্প্যানিশ সংসদ সদস্যরা দেশটিতে অবস্থান করা হাজার হাজার লোককে শ্রমবাজারে যুক্ত করার সুবিধা দিতে একটি আইনি সংস্কার উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।

সেই সময়ের প্রস্তাব অনুযায়ী কমপক্ষের দুই বছর ধরে স্পেনে থাকা অনিয়মিতদের একটি এক বছর মেয়াদি রেসিডেন্স পারমিট দেওয়ার কথা বলা হয়। তবে শর্ত হিসেবে অভিবাসীদের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণে নাম লেখাতে বলা হয়।

যেসব খাতে দেশটিতে জনবলের অভাব রয়েছে এমন একটি খাতের ওপর প্রশিক্ষণ নিতে বলা হয়। এসব সেক্টরের মধ্যে অন্যতম পর্যটন, পরিবহন, কৃষি এবং নির্মাণ খাত। তবে এসব কোর্সে ভর্তি হতে একটি ন্যূনতম স্তরের স্প্যানিশ ভাষা এবং কিছু নির্দিষ্ট কারিগরি দক্ষতা প্রয়োজন।

অভিবাসন সংস্থা ও এনজিওগুলো দাবি করেছে, এত জটিল শর্তের বেড়াজাল থেকে মুক্ত হতেই নিয়মিতকরণের জন্য সংসদে বিল পেশ করা হয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

স্পেনে ৫ লাখ অভিবাসীকে বৈধতা দিতে সংসদে বিল উত্থাপন

আপডেট টাইম : 08:07:18 am, Thursday, 25 May 2023

প্রবাস ডেস্ক: স্পেনে অনিয়মিত অভিবাসী শ্রমিকদের বৈধতা দিতে ‘অ্যাসেনসিয়াল’ নামের কর্মসূচির আওতায় গণস্বাক্ষর অভিযান চালিয়েছে ৮০০টিরও বেশি এনজিও, অভিবাসন সংস্থা ও সমিতি। এই সম্মিলিত উদ্যোগের ফলে ১০ মে দেশটির সংসদে পাঁচ লাখ অনিয়মিত অভিবাসীকে বৈধতা দিতে বিল উত্থাপন করা হয়েছে।

গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে স্পেনজুড়ে অভূতপূর্ব সাড়া মেলে। দেশটির মোট ৭০ লাখ নাগরিক এই কর্মসূচিতে সই করেছে। জনপ্রিয় এই আইনি উদ্যোগের কারণে পাঁচ লাখ অভিবাসী শ্রমিকের নিয়মিতকরণের জন্য স্প্যানিশ পার্লামেন্টে বিল পেশ করা সম্ভব হয়েছে।

পর্যাপ্ত সই সংগ্রহ করার জন্য বেশ কয়েক মাস ধরে এই উদ্যোগের সমর্থনে প্রচার চালায় বিভিন্ন অধিকার সংস্থা ও এনজিওগুলো।

স্প্যানিশ সংবিধান বিশেষজ্ঞ নিকোলাস পাউথে বলেন, স্প্যানিশ সংবিধানের ৮৭ এর ৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী কমপক্ষে ৫০ লাখ নাগরিকের স্বাক্ষর থাকলে একটি নাগরিক বিল সংসদে আলোচনায় আশার সুযোগ রয়েছে।

‘অভিবাসন নীতিতে ভূমিকা রাখতে চাই’

গণস্বাক্ষরের সমর্থনে শুরু হওইয়া অনলাইন প্রচারাভিযানটি গত ডিসেম্বরে শেষ হয়। এনজিও ও সংস্থাগুলো যৌথ প্ল্যাটফর্মের মুখপাত্র ১০ মে, বুধবার ৭০ লাখেরও বেশি সই নিয়ে সংসদের সামনে বিলটি পেশ করেন।

এ সময় মুখপাত্র বলেন, বহু লোক অনিয়মিত পরিস্থিতিতে বসবাস করছেন। তারা কোনোভাবেই বৈধ হতে পারছে না। মুখপাত্রদের একজন লামিন সার। সেনেগালের বংশোদ্ভূত এই ব্যক্তি অনথিভুক্ত অভিবাসীদের জন্য দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছেন।

তিনি স্প্যানিশ সংবাদপত্র এল দিয়ারিওকে বলেন, অভিবাসীদের মধ্যে এমন কিছু পরিবার রয়েছে যাদের শিশুরা স্বাস্থ্য বা শিক্ষা পরিষেবার সুযোগ নিতে পারছে না। এই বিকৃত ব্যবস্থা তাদের চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে রেখেছে।

এই প্রতিনিধি আরও দাবি করেন, আমরা আরও একটি নির্বাচনী বছর বিনিময়ের হাতিয়ার হতে চাই না। আমরা রাজনীতির যৌক্তিক বিষয় হতে চাই। অভিবাসন নীতিতে এবং জনসাধারণের নীতিতে ভূমিকা রাখতে চাই। যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে জড়িত।

অবসরে যাচ্ছেন হাজারো স্প্যানিশ

স্প্যানিশ পরিসংখ্যান দপ্তর বা ইনস্টিটিউট অব স্ট্যাটিস্টিকস (আইএনই) অনুসারে, গত ২০ বছরে স্পেনে বিদেশি কর্মীর সংখ্যা ১৪ লাখ থেকে বেড়ে ২৪ লাখে পৌঁছেছে। অর্থাৎ প্রতি বছর গড়ে ৭০ হাজার বিদেশি শ্রমিক স্পেনের শ্রমখাতে যুক্ত হয়েছে।

বর্তমান ক্ষমতাসীন পেড্রো সানচেজের সরকারের মতে, এই পরিসংখ্যান চাহিদা অনুযায়ী একটি প্রয়োজনীয় উপস্থিতি। কারণ অবসরে যাওয়া বয়স্ক জনসংখ্যার চাপ সামাল দিতে প্রতি বছর কমপক্ষে দুই লাখ অভিবাসীকে স্বাগত জানাতে হবে স্পেনে।

কিন্তু দেশটিতে অনিয়মিতদের নিয়মিতকরণের শর্ত খুবই জটিল। বৈধতা পেতে অভিবাসীদের অবশ্যই প্রমাণ করতে হয়, তারা কমপক্ষে তিন বছর ধরে স্পেনে আছেন। স্থানীয় পৌরসভা থেকে জারি করা আবাসনের একটি প্রশংসাপত্রের মাধ্যমে এটি প্রমাণ করতে হয়।

এছাড়া, প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৪০ ঘণ্টার জন্য এক বছরের কাজের চুক্তি জমা দেওয়াও অন্যতম শর্ত। তবে বেশিরভাগ অনিয়মিতদের পক্ষে এটি যোগাড় করা কঠিন। কারণ তাদের পক্ষে বৈধ কাজ খুঁজে পাওয়া প্রায় অসম্ভব। আবার খুঁজে পেলেও সেটি সপ্তাহে ৪০ ঘণ্টা হয় না।

বৈধতার নানা উদ্যোগ

২০২২ সালের জুলাইয়ে স্পেনের অভিবাসন বিষয়কমন্ত্রী জোসে লুইস এসক্রিভা জানিয়েছিলেন, অনিয়মিত পরিস্থিতিতে স্পেনে আসা ব্যক্তিদের বৈধতা পেতে গড়ে সাড়ে সাত বছর পর্যন্ত সময় লাগে।

এই ধীরগতি কমানোর লক্ষ্যে স্পেন সম্প্রতি বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে। ২০২২ সালের আগস্টে স্প্যানিশ সংসদ সদস্যরা দেশটিতে অবস্থান করা হাজার হাজার লোককে শ্রমবাজারে যুক্ত করার সুবিধা দিতে একটি আইনি সংস্কার উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন।

সেই সময়ের প্রস্তাব অনুযায়ী কমপক্ষের দুই বছর ধরে স্পেনে থাকা অনিয়মিতদের একটি এক বছর মেয়াদি রেসিডেন্স পারমিট দেওয়ার কথা বলা হয়। তবে শর্ত হিসেবে অভিবাসীদের বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণে নাম লেখাতে বলা হয়।

যেসব খাতে দেশটিতে জনবলের অভাব রয়েছে এমন একটি খাতের ওপর প্রশিক্ষণ নিতে বলা হয়। এসব সেক্টরের মধ্যে অন্যতম পর্যটন, পরিবহন, কৃষি এবং নির্মাণ খাত। তবে এসব কোর্সে ভর্তি হতে একটি ন্যূনতম স্তরের স্প্যানিশ ভাষা এবং কিছু নির্দিষ্ট কারিগরি দক্ষতা প্রয়োজন।

অভিবাসন সংস্থা ও এনজিওগুলো দাবি করেছে, এত জটিল শর্তের বেড়াজাল থেকে মুক্ত হতেই নিয়মিতকরণের জন্য সংসদে বিল পেশ করা হয়েছে।