Dhaka , Tuesday, 28 May 2024

চা-কফি বা খাবার খাওয়ার সময় জিহ্বা পুড়ে গেলে করণীয়

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:30:24 am, Thursday, 1 June 2023
  • 71 বার

লাইফস্টাইল ডেস্ক: গরম খাবার খাওয়ার সময় অনেকেরই জিহ্বা পুড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। বিষয়টি স্বাভাবিক হলেও বেশ কিছুদিন এ সমস্যার কারণে খাবার খাওয়ার সময় জ্বালাপোড়া অনুভূত হতে পারে, এমনকি খাবারের স্বাদও টের পাওয়া যায় না।

আবার কারও কারও ক্ষেত্রে পোড়া জিহ্বায় ক্ষত বেড়ে যায়। এজন্য জিহ্বা পুড়ে গেলেই তাৎক্ষণিক কী কারণীয় তা জানলে দ্রুত এ সমস্যা থেকে প্রশান্তি মিলবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক উপায়-

লবণ পানি দিয়ে কুলকুচি করুন

ঠান্ডা পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে কুলকুচি করুন। কয়েক মিনিট এই পদ্ধতি অনুসরণ করলে মুহূর্তেই মিলবে স্বস্তি। লবণ পানিতে অ্যান্টি সেপটিক প্রভাব আছে, যা জিহ্বার প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে।

ঠান্ডা দুধ ব্যবহার

দুধে থাকার পুষ্টিগুণ দ্রুত ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে। এজন্য কোনো পাত্রে ঠান্ডা দুধ নিয়ে, তার মধ্যে জিহ্বা ডুবিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। আবার ব্যথা অনুভব করার পরেও এই পদ্ধতি পুনরাবৃত্তি করতে পারেন। দেখবেন জ্বালাপোড়াভাব ও ব্যথা কমে যাবে মুহূর্তেই।

মধু লাগান

পোড়া স্থানে মধু ব্যবহারের ফলে প্রশান্তি মিলতে পারে। কারণ মধুতে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য আছে। এটি বৈজ্ঞানিকভাবেও প্রমাণিত যে, পোড়া নিরাময় করতে পারে মধু। যদি মধুতে আপনার অ্যালার্জি না থাকে তাহলে এক চামচ মধু নিয়ে জিহ্বায় লাগান। তবে এটি গিলে ফেলবেন না।

অ্যালোভেরার রস লাগান

অ্যালোভেরা হলো একটি প্রাকৃতিক নিরাময়কারী, যা প্রথম ও দ্বিতীয় ডিগ্রি পোড়া ক্ষতগুলোর চিকিত্সায় ব্যবহৃত হয়। এটি দ্রুত পোড়া নিরাময়ে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে জিহ্বায় অ্যালোভেরার রস লাগান ও অপেক্ষা করুন।

বরফ লাগান জিহ্বায়

জিহ্বা পুড়ে গেলে তাতে বরফের সেঁক দিতে ক্রমাগত বরফ লাগান পোড়া স্থানে। তবে মুখের মধ্যে বরফ রাখবেন না, এতে দাঁতের ক্ষতি হতে পারে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

চা-কফি বা খাবার খাওয়ার সময় জিহ্বা পুড়ে গেলে করণীয়

আপডেট টাইম : 08:30:24 am, Thursday, 1 June 2023

লাইফস্টাইল ডেস্ক: গরম খাবার খাওয়ার সময় অনেকেরই জিহ্বা পুড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। বিষয়টি স্বাভাবিক হলেও বেশ কিছুদিন এ সমস্যার কারণে খাবার খাওয়ার সময় জ্বালাপোড়া অনুভূত হতে পারে, এমনকি খাবারের স্বাদও টের পাওয়া যায় না।

আবার কারও কারও ক্ষেত্রে পোড়া জিহ্বায় ক্ষত বেড়ে যায়। এজন্য জিহ্বা পুড়ে গেলেই তাৎক্ষণিক কী কারণীয় তা জানলে দ্রুত এ সমস্যা থেকে প্রশান্তি মিলবে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক উপায়-

লবণ পানি দিয়ে কুলকুচি করুন

ঠান্ডা পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে কুলকুচি করুন। কয়েক মিনিট এই পদ্ধতি অনুসরণ করলে মুহূর্তেই মিলবে স্বস্তি। লবণ পানিতে অ্যান্টি সেপটিক প্রভাব আছে, যা জিহ্বার প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে।

ঠান্ডা দুধ ব্যবহার

দুধে থাকার পুষ্টিগুণ দ্রুত ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে। এজন্য কোনো পাত্রে ঠান্ডা দুধ নিয়ে, তার মধ্যে জিহ্বা ডুবিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। আবার ব্যথা অনুভব করার পরেও এই পদ্ধতি পুনরাবৃত্তি করতে পারেন। দেখবেন জ্বালাপোড়াভাব ও ব্যথা কমে যাবে মুহূর্তেই।

মধু লাগান

পোড়া স্থানে মধু ব্যবহারের ফলে প্রশান্তি মিলতে পারে। কারণ মধুতে অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য আছে। এটি বৈজ্ঞানিকভাবেও প্রমাণিত যে, পোড়া নিরাময় করতে পারে মধু। যদি মধুতে আপনার অ্যালার্জি না থাকে তাহলে এক চামচ মধু নিয়ে জিহ্বায় লাগান। তবে এটি গিলে ফেলবেন না।

অ্যালোভেরার রস লাগান

অ্যালোভেরা হলো একটি প্রাকৃতিক নিরাময়কারী, যা প্রথম ও দ্বিতীয় ডিগ্রি পোড়া ক্ষতগুলোর চিকিত্সায় ব্যবহৃত হয়। এটি দ্রুত পোড়া নিরাময়ে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে জিহ্বায় অ্যালোভেরার রস লাগান ও অপেক্ষা করুন।

বরফ লাগান জিহ্বায়

জিহ্বা পুড়ে গেলে তাতে বরফের সেঁক দিতে ক্রমাগত বরফ লাগান পোড়া স্থানে। তবে মুখের মধ্যে বরফ রাখবেন না, এতে দাঁতের ক্ষতি হতে পারে।