Dhaka , Saturday, 22 June 2024

দোনেৎস্কে ইউক্রেনীয় বাহিনীর হামলায় নিহত ৩

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 09:05:05 am, Friday, 2 June 2023
  • 46 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দোনেৎস্কে বিভিন্ন স্থানে ইউক্রেনীয় বাহিনীর ৮৪টি হামলা চালিয়েছে। এ হামলায় অন্তত তিনজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন চারজন বলে জানিয়েছে স্ব-ঘোষিত দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিক (ডিপিআর)।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত থেকে শুক্রবার মধ্যরাত পর্যন্ত এ হামলা চলে বলে সংগঠনটি নিশ্চিত করেছে।

ইউক্রেনের সশস্ত্রবাহিনী ৮৪টি গোলাগুলির ঘটনা ঘটিয়েছে। দোনেৎস্ক শহরের পেট্রোভস্কি জেলায় দুজন এবং হরলিভকা শহরের সেন্ট্রালনো-মিস্কি জেলায় একজনসহ তিনজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।

২০০৮ ও ২০১৩ সালে জন্ম নেওয়া শিশুসহ চারজন বেসামরিক লোক আহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে রুশ বাহিনী ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করে। পুতিন ইউক্রেনকে অসামরিকীকরণ ও ডিনাজিফাই করার জন্য একটি বিশেষ সামরিক অভিযান চালানোর ঘোষণা করেন। কয়েক মিনিট পরে, রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের সর্বত্র ক্ষেপণাস্ত্র ও বিমান হামলা হয়, এর পরেই একাধিক দিক থেকে একটি বড় স্থল আক্রমণ শুরু হয়। এখনো চলছে এই যুদ্ধ। যুদ্ধে ৬০ লাখের বেশি মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন। পুতিন দখল করেছেন ইউক্রেনের চারটি রাজ্য।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

দোনেৎস্কে ইউক্রেনীয় বাহিনীর হামলায় নিহত ৩

আপডেট টাইম : 09:05:05 am, Friday, 2 June 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দোনেৎস্কে বিভিন্ন স্থানে ইউক্রেনীয় বাহিনীর ৮৪টি হামলা চালিয়েছে। এ হামলায় অন্তত তিনজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন চারজন বলে জানিয়েছে স্ব-ঘোষিত দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিক (ডিপিআর)।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় মধ্যরাত থেকে শুক্রবার মধ্যরাত পর্যন্ত এ হামলা চলে বলে সংগঠনটি নিশ্চিত করেছে।

ইউক্রেনের সশস্ত্রবাহিনী ৮৪টি গোলাগুলির ঘটনা ঘটিয়েছে। দোনেৎস্ক শহরের পেট্রোভস্কি জেলায় দুজন এবং হরলিভকা শহরের সেন্ট্রালনো-মিস্কি জেলায় একজনসহ তিনজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন।

২০০৮ ও ২০১৩ সালে জন্ম নেওয়া শিশুসহ চারজন বেসামরিক লোক আহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০২২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি সকালে রুশ বাহিনী ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করে। পুতিন ইউক্রেনকে অসামরিকীকরণ ও ডিনাজিফাই করার জন্য একটি বিশেষ সামরিক অভিযান চালানোর ঘোষণা করেন। কয়েক মিনিট পরে, রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের সর্বত্র ক্ষেপণাস্ত্র ও বিমান হামলা হয়, এর পরেই একাধিক দিক থেকে একটি বড় স্থল আক্রমণ শুরু হয়। এখনো চলছে এই যুদ্ধ। যুদ্ধে ৬০ লাখের বেশি মানুষ ইউক্রেন ছেড়ে পালিয়েছেন। পুতিন দখল করেছেন ইউক্রেনের চারটি রাজ্য।