Dhaka , Saturday, 22 June 2024

কুয়েতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত দুই বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:18:30 am, Sunday, 4 June 2023
  • 74 বার

প্রবাস ডেস্ক: কুয়েতের বাংলাদেশ অধ্যুষিত এলাকা জিলিব আল শুয়েখে অগ্নিকাণ্ডে নিহত দুই বাংলাদেশির পরিচয় পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১ জুন) অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দুই বাংলাদেশি ও এক পাকিস্তানিসহ মোট তিনজন নিহত হন। এছাড়া আহত আরও দুই বাংলাদেশি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহত বাংলাদেশিদের একজন হলেন ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকার রাজবাড়ী গ্রামের মোহাম্মদ ইদ্রিস মিয়ার ছেলে আসাদুল খান (৩৮)। অন্যজন হলেন একই উপজেলার অগ্রখলা গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে ইমরান হোসেন (৪০)। নিহতরা একে অপরের মামাতো ফুফাতো ভাই বলে নিশ্চিত করেন তাদের এক নিকটাত্মীয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অগ্নিকাণ্ডের সময় তারা ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। দুইজনেই সিকরাফের ব্যবসা করতেন। কাজ থেকে বাসায় ফিরে প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে পড়েন। আগুন লাগার ফলে তারা বুঝতে পারেনি। এক পর্যায়ে রুমের বাইরে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় বের হওয়া আর সম্ভব হয়নি। যার কারণে তারা শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায়।

এদিকে তাদের মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসে শোকের ছায়া। তাদের মরদেহ বর্তমানে মর্গে রয়েছে। প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ দেশে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তাদের সহকর্মীরা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

কুয়েতে অগ্নিকাণ্ডে নিহত দুই বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত

আপডেট টাইম : 08:18:30 am, Sunday, 4 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: কুয়েতের বাংলাদেশ অধ্যুষিত এলাকা জিলিব আল শুয়েখে অগ্নিকাণ্ডে নিহত দুই বাংলাদেশির পরিচয় পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১ জুন) অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দুই বাংলাদেশি ও এক পাকিস্তানিসহ মোট তিনজন নিহত হন। এছাড়া আহত আরও দুই বাংলাদেশি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহত বাংলাদেশিদের একজন হলেন ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকার রাজবাড়ী গ্রামের মোহাম্মদ ইদ্রিস মিয়ার ছেলে আসাদুল খান (৩৮)। অন্যজন হলেন একই উপজেলার অগ্রখলা গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে ইমরান হোসেন (৪০)। নিহতরা একে অপরের মামাতো ফুফাতো ভাই বলে নিশ্চিত করেন তাদের এক নিকটাত্মীয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অগ্নিকাণ্ডের সময় তারা ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। দুইজনেই সিকরাফের ব্যবসা করতেন। কাজ থেকে বাসায় ফিরে প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে পড়েন। আগুন লাগার ফলে তারা বুঝতে পারেনি। এক পর্যায়ে রুমের বাইরে আগুন ছড়িয়ে পড়ায় বের হওয়া আর সম্ভব হয়নি। যার কারণে তারা শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যায়।

এদিকে তাদের মৃত্যুতে পরিবারে নেমে এসে শোকের ছায়া। তাদের মরদেহ বর্তমানে মর্গে রয়েছে। প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ দেশে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তাদের সহকর্মীরা।