Dhaka , Monday, 17 June 2024

প্রবাসীদের কাজ পরিবর্তনে বিধিনিষেধ দিতে চায় কোরিয়ার মালিকপক্ষ

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:14:44 am, Monday, 5 June 2023
  • 46 বার

প্রবাস ডেস্ক: এশিয়ার উন্নত দেশ দক্ষিণ কোরিয়ায় ই-৯ ভিসায় প্রথম ৩ বছরের মধ্যে কাজ পরিবর্তনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চায় ১০ জনের মধ্যে ৬ জনের বেশি মালিক।

কোরিয়া ফেডারেশনের এক জরিপে দেখা যায়, কাজ পরিবর্তনের আবেদন যখন মালিক প্রত্যাখ্যান করে তখন শ্রমিকরা ধীরে কাজ করে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য। ৫৮.২ শতাংশ কোম্পানির শ্রমিক কাজে যোগদানের ৬ মাসের মধ্যে কাজ পরিবর্তনের সম্মুখীন হয়। তার মধ্যে ৪২.৩ শতাংশ শ্রমিক কাজ পরিবর্তন করে যোগদানের ১ বছরের কম সময়ে।

সবচেয়ে কাছের বন্ধুর সঙ্গে কাজ করতে চায় ৩৮.৫ শতাংশ শ্রমিক, যার কারণে তারা কাজ পরিবর্তনের আবেদন করে। ৯৬.৮ শতাংশ কোম্পানি কাজ পরিবর্তনে শ্রমিকদের আবেদন গ্রহণ করে, অবশিষ্ট কোম্পানি আবেদন প্রত্যাখান করে থাকে।

কাজ পরিবর্তনের জন্য শ্রমিকদের আচরণ অসন্তোষজনক হয়ে থাকে। ৮৫.৪ শতাংশ কোম্পানির ভাষ্য, কাজ পরিবর্তনের জন্য একজন শ্রমিক কাজের গতি কমিয়ে দেয়, অসুস্থতা দেখানোসহ কাজে না আসার মতো ঘটনা ঘটিয়ে থাকে।

যথোপযুক্ত কারণ ছাড়া শ্রমিকের কোম্পানি পরিবর্তনের বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নিতে চায় মালিকপক্ষ। এ বিষয়ে তারা সরকারের উপর চাপ প্রয়োগ করছে। সরকার যেন এই বিষয়টি বিবেচনায় নেয়।

মালিকপক্ষের এই আবেদন যদিও আন্তর্জাতিক শ্রম আইন বিরোধী। শ্রমিক সংগঠন, মানবাধিকার সংগঠনগুলোও এর বিরোধিতা করছে। তবুও কোরিয়া সরকার তাদের প্রয়োজনে যে কোনো পরিবর্তন আনতে পারে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রবাসীদের কাজ পরিবর্তনে বিধিনিষেধ দিতে চায় কোরিয়ার মালিকপক্ষ

আপডেট টাইম : 08:14:44 am, Monday, 5 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: এশিয়ার উন্নত দেশ দক্ষিণ কোরিয়ায় ই-৯ ভিসায় প্রথম ৩ বছরের মধ্যে কাজ পরিবর্তনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে চায় ১০ জনের মধ্যে ৬ জনের বেশি মালিক।

কোরিয়া ফেডারেশনের এক জরিপে দেখা যায়, কাজ পরিবর্তনের আবেদন যখন মালিক প্রত্যাখ্যান করে তখন শ্রমিকরা ধীরে কাজ করে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য। ৫৮.২ শতাংশ কোম্পানির শ্রমিক কাজে যোগদানের ৬ মাসের মধ্যে কাজ পরিবর্তনের সম্মুখীন হয়। তার মধ্যে ৪২.৩ শতাংশ শ্রমিক কাজ পরিবর্তন করে যোগদানের ১ বছরের কম সময়ে।

সবচেয়ে কাছের বন্ধুর সঙ্গে কাজ করতে চায় ৩৮.৫ শতাংশ শ্রমিক, যার কারণে তারা কাজ পরিবর্তনের আবেদন করে। ৯৬.৮ শতাংশ কোম্পানি কাজ পরিবর্তনে শ্রমিকদের আবেদন গ্রহণ করে, অবশিষ্ট কোম্পানি আবেদন প্রত্যাখান করে থাকে।

কাজ পরিবর্তনের জন্য শ্রমিকদের আচরণ অসন্তোষজনক হয়ে থাকে। ৮৫.৪ শতাংশ কোম্পানির ভাষ্য, কাজ পরিবর্তনের জন্য একজন শ্রমিক কাজের গতি কমিয়ে দেয়, অসুস্থতা দেখানোসহ কাজে না আসার মতো ঘটনা ঘটিয়ে থাকে।

যথোপযুক্ত কারণ ছাড়া শ্রমিকের কোম্পানি পরিবর্তনের বিষয়টি নিয়ে ব্যবস্থা নিতে চায় মালিকপক্ষ। এ বিষয়ে তারা সরকারের উপর চাপ প্রয়োগ করছে। সরকার যেন এই বিষয়টি বিবেচনায় নেয়।

মালিকপক্ষের এই আবেদন যদিও আন্তর্জাতিক শ্রম আইন বিরোধী। শ্রমিক সংগঠন, মানবাধিকার সংগঠনগুলোও এর বিরোধিতা করছে। তবুও কোরিয়া সরকার তাদের প্রয়োজনে যে কোনো পরিবর্তন আনতে পারে।