Dhaka , Monday, 17 June 2024

প্যারিসে বাগানে পড়ে ছিল বাংলাদেশি আবুল খায়েরের মরদেহ

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:36:47 am, Tuesday, 6 June 2023
  • 54 বার

প্রবাস ডেস্ক: প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলায় খুন হয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি যুবক চৌধুরী আবুল খায়ের। সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যা করে রাস্তার পাশে বাগানে ফেলে যায়। পরে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত আবুল খায়ের সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের গন্ধবপুর গ্রামের বাসিন্দা।

নিহতের স্বজনদের তথ্যমতে- গত ২৩ মে থেকে আবুল খায়ের নিখোঁজ ছিলেন। স্বজনরা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পাচ্ছিলেন না।

জানা গেছে- গত ২৬ মে প্যারিসের অদূরে ‘‘Boussy Saint-Antoine’’ ট্রেন স্টেশনের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করলেও পুলিশ তার পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি। উদ্ধারের সময় নিহতের পকেটে বাংলাভাষায় লিখিত একটি কাগজ দেখতে পেয়ে তারা ধারণা করেন, নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশি হতে পারে।

পরে আশপাশে বাঙালি, পাকিস্তানি ও ইন্ডিয়ান দোকানগুলোতে পুলিশ তার ছবি দেখিয়ে পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করে। ৩৮ বছর বয়সী আবুল খায়ের ওই স্টেশনের পাশে ব্যবসা করতেন।

অবশেষে গত শুক্রবার নিহতের সন্ধান পাওয়া যায়। তবে কী কারণে কে বা কারা তাকে নির্মমভাবে খুন করলো, তা এখনও জানা যায়নি। নিহতের শরীরে অনেক আঘাতে চিহ্ন রয়েছে বলে পুলিশ নিহতের স্বজনদের জানিয়েছে।

জানা যায়, দীর্ঘ ১২ বছর থেকে তিনি প্রবাস জীবনে আছেন। তবে নির্মম বাস্তবতায় এক যুগেও তার বৈধতার কাগজ হয়নি। এজন্য তিনি অনেক অর্থও ব্যয় করেছেন।

গেলো বছর ঠিক এই সময়টাতে প্যারিসের রাস্তায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছিলেন আরেক প্রবাসী যুবক সোহেল রানা। এক বছরের মাথায় একইভাবে খুনের শিকার হলেন প্রবাসী চৌধুরী আবুল খায়ের।

বারবার এমন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কমিউনিটিতে ক্ষোভ বিরাজ করছেন। এ ব্যাপারে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন কমিউনিটির শীর্ষ ব্যক্তিরা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

প্যারিসে বাগানে পড়ে ছিল বাংলাদেশি আবুল খায়েরের মরদেহ

আপডেট টাইম : 08:36:47 am, Tuesday, 6 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলায় খুন হয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশি যুবক চৌধুরী আবুল খায়ের। সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যা করে রাস্তার পাশে বাগানে ফেলে যায়। পরে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত আবুল খায়ের সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার কালারুকা ইউনিয়নের গন্ধবপুর গ্রামের বাসিন্দা।

নিহতের স্বজনদের তথ্যমতে- গত ২৩ মে থেকে আবুল খায়ের নিখোঁজ ছিলেন। স্বজনরা বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পাচ্ছিলেন না।

জানা গেছে- গত ২৬ মে প্যারিসের অদূরে ‘‘Boussy Saint-Antoine’’ ট্রেন স্টেশনের পাশ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করলেও পুলিশ তার পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি। উদ্ধারের সময় নিহতের পকেটে বাংলাভাষায় লিখিত একটি কাগজ দেখতে পেয়ে তারা ধারণা করেন, নিহত ব্যক্তি বাংলাদেশি হতে পারে।

পরে আশপাশে বাঙালি, পাকিস্তানি ও ইন্ডিয়ান দোকানগুলোতে পুলিশ তার ছবি দেখিয়ে পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করে। ৩৮ বছর বয়সী আবুল খায়ের ওই স্টেশনের পাশে ব্যবসা করতেন।

অবশেষে গত শুক্রবার নিহতের সন্ধান পাওয়া যায়। তবে কী কারণে কে বা কারা তাকে নির্মমভাবে খুন করলো, তা এখনও জানা যায়নি। নিহতের শরীরে অনেক আঘাতে চিহ্ন রয়েছে বলে পুলিশ নিহতের স্বজনদের জানিয়েছে।

জানা যায়, দীর্ঘ ১২ বছর থেকে তিনি প্রবাস জীবনে আছেন। তবে নির্মম বাস্তবতায় এক যুগেও তার বৈধতার কাগজ হয়নি। এজন্য তিনি অনেক অর্থও ব্যয় করেছেন।

গেলো বছর ঠিক এই সময়টাতে প্যারিসের রাস্তায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছিলেন আরেক প্রবাসী যুবক সোহেল রানা। এক বছরের মাথায় একইভাবে খুনের শিকার হলেন প্রবাসী চৌধুরী আবুল খায়ের।

বারবার এমন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কমিউনিটিতে ক্ষোভ বিরাজ করছেন। এ ব্যাপারে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন কমিউনিটির শীর্ষ ব্যক্তিরা।