Dhaka , Friday, 24 May 2024

কানাডার ক্যালগেরিতে জেরিন আর্ট স্কুলের বার্ষিক বনভোজন

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:22:13 am, Monday, 12 June 2023
  • 31 বার

প্রবাস ডেস্ক: কানাডার ক্যালগেরিতে জেরিন আর্ট স্কুলের উদ্যোগে সম্পন্ন হয়েছে বার্ষিক বনভোজন। গ্রীষ্মের প্রারম্ভে ক্যালগেরির অদূরে হাই রিভার ক্যাম্পগ্রাউন্ডে এই বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়।

হাইউড রিভার এই ছোট্ট শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে বলেই এর নামকরণ করা হয়েছে হাই রিভার। বনভোজন অনুষ্ঠানের আবহাওয়া ছিল চমৎকার। ছায়া সুনিবিড়, সবুজে ঘেরা চত্বরে সবার মনে এক ধরনের প্রশান্তি এনে দিয়েছিল।

বিভিন্ন ইভেন্টে স্কুলের শিক্ষার্থী ও অবিভাবকদের অংশগ্রহণ ছিল উপভোগ্য। প্রতিবার এ স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয় নভেম্বর। এবারই প্রথম অভিভাবকদের উদ্যোগ ও অনুপ্রেরণায় পিকনিকের আয়োজন করা হয়।
বনভোজনে অংশগ্রহণ করেন মোট ৬০ জন শিক্ষার্থী ও অভিভাবক। সবাই খুব আনন্দের মধ্যে দিয়ে দিনটি পালন করেছে। বিশেষ করে ছোট ছোট কোমলমতি শিক্ষার্থীরা গ্রীষ্মের আবহাওয়ায় যেন নিজস্ব অবয়বে হারিয়ে গিয়েছিল। সাথে বাড়তি যোগ হয়েছিল অভিভাবকদের সেই চিরচেনা আড্ডা আর সারা দিনব্যাপী সুস্বাদু খাবার।

বনভোজনকে ছোট ছোট শিশু কিশোরদের সাথে প্রাণবন্ত করে তুলেছিল অভিভাবক সঙ্গীত শিল্পী গুরু প্রসাদ-পুর্বাশা চৌধুরী, শেখর কুমার সান্যাল ও তার পরিবার, দেবাশীষ ভৌমিক ও তার পরিবার, আবৃতি শিল্পী আবীর খন্দকার, ওবাইদুর-ডলি, সমীরন-বিপাশা, খোকন শিকদার-মাধবী, গোপাল-মিলি প্রমুখ। বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন আলবার্টার রাইটার্স ফোরামের সভাপতি বায়াজিদ গালিব।

বনভোজনের আয়োজক ও অংকন আর্ট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা চিত্রশিল্পী ও ভাস্কর জেরিন তাজ জানান, দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকলেও নিজ দেশের কথা ভুলে যায় কী করে? আর তাইতো ছোট ছোট শিশু-কিশোরদের মধ্যে শুধু অংকনের মধ্য দিয়ে নয়, বাস্তবতার বাংলার সেইরূপ খুঁজে পাওয়ার প্রয়াসেই আজকের এই আয়োজন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

কানাডার ক্যালগেরিতে জেরিন আর্ট স্কুলের বার্ষিক বনভোজন

আপডেট টাইম : 08:22:13 am, Monday, 12 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: কানাডার ক্যালগেরিতে জেরিন আর্ট স্কুলের উদ্যোগে সম্পন্ন হয়েছে বার্ষিক বনভোজন। গ্রীষ্মের প্রারম্ভে ক্যালগেরির অদূরে হাই রিভার ক্যাম্পগ্রাউন্ডে এই বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়।

হাইউড রিভার এই ছোট্ট শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে বলেই এর নামকরণ করা হয়েছে হাই রিভার। বনভোজন অনুষ্ঠানের আবহাওয়া ছিল চমৎকার। ছায়া সুনিবিড়, সবুজে ঘেরা চত্বরে সবার মনে এক ধরনের প্রশান্তি এনে দিয়েছিল।

বিভিন্ন ইভেন্টে স্কুলের শিক্ষার্থী ও অবিভাবকদের অংশগ্রহণ ছিল উপভোগ্য। প্রতিবার এ স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয় নভেম্বর। এবারই প্রথম অভিভাবকদের উদ্যোগ ও অনুপ্রেরণায় পিকনিকের আয়োজন করা হয়।
বনভোজনে অংশগ্রহণ করেন মোট ৬০ জন শিক্ষার্থী ও অভিভাবক। সবাই খুব আনন্দের মধ্যে দিয়ে দিনটি পালন করেছে। বিশেষ করে ছোট ছোট কোমলমতি শিক্ষার্থীরা গ্রীষ্মের আবহাওয়ায় যেন নিজস্ব অবয়বে হারিয়ে গিয়েছিল। সাথে বাড়তি যোগ হয়েছিল অভিভাবকদের সেই চিরচেনা আড্ডা আর সারা দিনব্যাপী সুস্বাদু খাবার।

বনভোজনকে ছোট ছোট শিশু কিশোরদের সাথে প্রাণবন্ত করে তুলেছিল অভিভাবক সঙ্গীত শিল্পী গুরু প্রসাদ-পুর্বাশা চৌধুরী, শেখর কুমার সান্যাল ও তার পরিবার, দেবাশীষ ভৌমিক ও তার পরিবার, আবৃতি শিল্পী আবীর খন্দকার, ওবাইদুর-ডলি, সমীরন-বিপাশা, খোকন শিকদার-মাধবী, গোপাল-মিলি প্রমুখ। বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন আলবার্টার রাইটার্স ফোরামের সভাপতি বায়াজিদ গালিব।

বনভোজনের আয়োজক ও অংকন আর্ট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা চিত্রশিল্পী ও ভাস্কর জেরিন তাজ জানান, দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকলেও নিজ দেশের কথা ভুলে যায় কী করে? আর তাইতো ছোট ছোট শিশু-কিশোরদের মধ্যে শুধু অংকনের মধ্য দিয়ে নয়, বাস্তবতার বাংলার সেইরূপ খুঁজে পাওয়ার প্রয়াসেই আজকের এই আয়োজন।