Dhaka , Wednesday, 29 May 2024

সৌদিতে মারা যাওয়া বাবার লাশ দেখতে চান সন্তানেরা

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:07:58 am, Saturday, 17 June 2023
  • 40 বার

প্রবাস ডেস্ক: সৌদি আরবে ফরিদপুরের ভাঙ্গার রোকন উদ্দিনের (৫৫) তার মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে দেশটির আল বাতেন শহরে মুদি দোকানে কাজ করার সময় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান। এদিকে সৌদিতে মৃত বাবার লাশ দেখতে চান সন্তানেরা।

রোকন উদ্দিন ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার কাউলীবেড়া ইউনিয়নের চরমুখডোবা গ্রামের মৃত্যু ছলেমান শেখ এর পুত্র।

জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে মুদি দোকানে কাজ করার সময় হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। উপস্থিত লোকজন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

পারিবার সূত্রে জানা যায়, সংসারের সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে বড় স্বপ্ন নিয়ে আপনজন ছেড়ে চার বছর আগে সৌদি আরবে পাড়ি জমান রোকন। সকালে কাজ করার সময় তিনি স্ট্রোক করে কর্মস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

রোকন উদ্দিন ৪ ভাই বোনের মধ্যে দ্বিতীয়। তার স্ত্রী ও দুইটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বাবার মৃত্যু সংবাদ সুনে সন্তানদের আহাজারিতে আকাশ বাতায় ভারি হয়ে উঠে। বাবার লাশ দেখার আকুতি জানিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সন্তানেরা।

রোকনের স্ত্রী বলেন, দ্রুত তার স্বামীর লাশ দেশে আনার জন্য সরকারের কাছে দাবি করছি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

সৌদিতে মারা যাওয়া বাবার লাশ দেখতে চান সন্তানেরা

আপডেট টাইম : 08:07:58 am, Saturday, 17 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: সৌদি আরবে ফরিদপুরের ভাঙ্গার রোকন উদ্দিনের (৫৫) তার মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে দেশটির আল বাতেন শহরে মুদি দোকানে কাজ করার সময় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান। এদিকে সৌদিতে মৃত বাবার লাশ দেখতে চান সন্তানেরা।

রোকন উদ্দিন ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার কাউলীবেড়া ইউনিয়নের চরমুখডোবা গ্রামের মৃত্যু ছলেমান শেখ এর পুত্র।

জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে মুদি দোকানে কাজ করার সময় হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। উপস্থিত লোকজন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

পারিবার সূত্রে জানা যায়, সংসারের সচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে বড় স্বপ্ন নিয়ে আপনজন ছেড়ে চার বছর আগে সৌদি আরবে পাড়ি জমান রোকন। সকালে কাজ করার সময় তিনি স্ট্রোক করে কর্মস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

রোকন উদ্দিন ৪ ভাই বোনের মধ্যে দ্বিতীয়। তার স্ত্রী ও দুইটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বাবার মৃত্যু সংবাদ সুনে সন্তানদের আহাজারিতে আকাশ বাতায় ভারি হয়ে উঠে। বাবার লাশ দেখার আকুতি জানিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন সন্তানেরা।

রোকনের স্ত্রী বলেন, দ্রুত তার স্বামীর লাশ দেশে আনার জন্য সরকারের কাছে দাবি করছি।