Dhaka , Friday, 24 May 2024

মালয়েশিয়ায় নাইটক্লাবে অভিযান, ৩ বাংলাদেশিসহ গ্রেফতার ৭২

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:15:21 am, Monday, 19 June 2023
  • 43 বার

মালয়েশিয়া ডেস্ক: মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের পাশাপাশি নাইটক্লাবগুলোতে অভিযান জোরদার করেছে অভিবাসন ও পুলিশ বিভাগ। কুয়ালালামপুরের আশপাশে পরিচালিত এক বিশেষ অভিযানে তিন বাংলাদেশিসহ ৭২ বিদেশিকে গ্রেফতার করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ।

অভিযুক্তদের গ্রেফতারের পাশাপাশি ৪৮টি ভিয়েতনামি পাসপোর্ট এবং একটি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে।

রোববার (১৮ জুন) দেশটির ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক রুসলিন জুসোহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি এক বিবৃতিতে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় অভিযান শুরু হয়। ইমিগ্রেশন সদরদপ্তরের গোয়েন্দা ও বিশেষ অপারেশন বিভাগের বিভিন্ন পদের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে চেরাস এবং কেপংয়ে বিশেষ এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে বিদেশিদের মধ্যে ভিয়েতনামের ৪৩ জন নারী ও চারজন পুরুষ, ইন্দোনেশিয়ার ১৫ জন নারী, থাইল্যান্ডের ছয়জন নারী, বাংলাদেশি তিন ও ভারতের এক পুরুষ রয়েছেন।

রুসলিন বলেন, গ্রেফতার বিদেশিদের বৈধ ভ্রমণ নথি নেই এবং তারা মেয়াদোত্তীর্ণ সামাজিক ভিজিট পাসের অপব্যবহার করেছেন। এছাড়া বিদেশি নারীরা যৌনকর্মে লিপ্তসহ বিভিন্ন অপরাধ করেছেন।

তিনি বলেন, হোয়াটসঅ্যাপ এবং টেলিগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন গ্রুপে যৌন পরিষেবার বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে সিন্ডিকেটটি প্রায় দুই বছর ধরে এ কাজ করে আসছিল।

গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সিমুনিয়া ইমিগ্রেশন ডিপোতে রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

মালয়েশিয়ায় নাইটক্লাবে অভিযান, ৩ বাংলাদেশিসহ গ্রেফতার ৭২

আপডেট টাইম : 08:15:21 am, Monday, 19 June 2023

মালয়েশিয়া ডেস্ক: মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের পাশাপাশি নাইটক্লাবগুলোতে অভিযান জোরদার করেছে অভিবাসন ও পুলিশ বিভাগ। কুয়ালালামপুরের আশপাশে পরিচালিত এক বিশেষ অভিযানে তিন বাংলাদেশিসহ ৭২ বিদেশিকে গ্রেফতার করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ।

অভিযুক্তদের গ্রেফতারের পাশাপাশি ৪৮টি ভিয়েতনামি পাসপোর্ট এবং একটি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে।

রোববার (১৮ জুন) দেশটির ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক রুসলিন জুসোহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি এক বিবৃতিতে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় অভিযান শুরু হয়। ইমিগ্রেশন সদরদপ্তরের গোয়েন্দা ও বিশেষ অপারেশন বিভাগের বিভিন্ন পদের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে চেরাস এবং কেপংয়ে বিশেষ এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে বিদেশিদের মধ্যে ভিয়েতনামের ৪৩ জন নারী ও চারজন পুরুষ, ইন্দোনেশিয়ার ১৫ জন নারী, থাইল্যান্ডের ছয়জন নারী, বাংলাদেশি তিন ও ভারতের এক পুরুষ রয়েছেন।

রুসলিন বলেন, গ্রেফতার বিদেশিদের বৈধ ভ্রমণ নথি নেই এবং তারা মেয়াদোত্তীর্ণ সামাজিক ভিজিট পাসের অপব্যবহার করেছেন। এছাড়া বিদেশি নারীরা যৌনকর্মে লিপ্তসহ বিভিন্ন অপরাধ করেছেন।

তিনি বলেন, হোয়াটসঅ্যাপ এবং টেলিগ্রামসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন গ্রুপে যৌন পরিষেবার বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে সিন্ডিকেটটি প্রায় দুই বছর ধরে এ কাজ করে আসছিল।

গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সিমুনিয়া ইমিগ্রেশন ডিপোতে রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।