Dhaka , Friday, 24 May 2024

আমিরাতে স্বজনহীন কোরবানির ঈদ উদযাপন প্রবাসীদের

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 09:06:06 am, Friday, 30 June 2023
  • 60 বার

প্রবাস ডেস্ক: মা-বাবা, পরিবার-পরিজন ও আত্মীয়-স্বজনহীন কোরবানির ঈদ উদযাপন করলেন আমিরাতের প্রবাসীরা। বুধবার দেশটিতে উদযাপিত হয় ঈদুল আজহা।

এদিন ফজরের নামাজের আগে থেকেই মসজিদ ও ঈদগা প্রাঙ্গণে জড়ো হতে শুরু করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। ফজরের নামাজের পর পবিত্র ঈদ উল আজহা উপলক্ষে ভোর ৬টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় দিনের প্রথম জামাত। বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার মুসলিম নাগরিকের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঈদের নামাজে শরিক হন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও।

বাংলাদেশিদের জন্য প্রবাস জীবন অনেকটা ছন্দহীন। নিরানন্দ ও পরিশ্রমী জীবনযাপনের প্রবাস নামক ডায়েরির এক একটা পাতা যেন প্রবাসীদের জীবন গাঁথা। কর্মেডুবে থাকা ব্যস্ততার মাঝেও প্রবাসীদের ঈদের প্রধান আনন্দ দেশে আপনজনদের জন্য টাকা পাঠানো।

বেশিরভাগ প্রবাসী শ্রমিকদের কোরবানির দিন ব্যতীত ছুটি থাকে না। আবার অনেকের কোরবানির দিনও ডিউটি থাকে। ঈদের দিন ডিউটিতে থাকা অনেক প্রবাসীদের আক্ষেপ করে বলতে শোনা যায়-কী আর করব! বিদেশে আসছি টাকা উপার্জন করতে, আমাদের মতো হতভাগাদের ঈদ কী আবার? এ তো একটি কয়েদখানা।

এত কিছু সত্ত্বেও কোরবানির ঈদ পালন করতে পিছিয়ে নেই প্রবাসীরাও। কোরবানির ঈদের দিন বিভিন্ন আয়োজন করে থাকেন প্রবাসীরা। কয়েকজন মিলে অংশীদারের ভিত্তিতে ছাগল কিনে জবাই করেন। আবার কেউ কেউ একসঙ্গে মিলে গরু কিনে জবাই করেন। কেউবা আবার বাজার থেকে মাংস কিনে আনেন। প্রবাসে থাকা আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবদের দাওয়াত করেন। তারা মনে করেন, এই কর্মময় জীবনে একটা দিন হলেও মিলেমিশে একবেলা খাওয়া-দাওয়া ও গল্প তো করা গেল।

অনেক প্রবাসীদের দেখা যায় তাদের শুধু কোরবানির দিন ছুটি থাকে। ছুটির দিন ঈদগাহ থেকে এসে অনেকে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুম থেকে উঠে ছাগল জবাই করে খাওয়া-দাওয়া শেষ করে আবারও তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়েন, কেননা পরদিন আবার ডিউটিতে যেতে হবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

আমিরাতে স্বজনহীন কোরবানির ঈদ উদযাপন প্রবাসীদের

আপডেট টাইম : 09:06:06 am, Friday, 30 June 2023

প্রবাস ডেস্ক: মা-বাবা, পরিবার-পরিজন ও আত্মীয়-স্বজনহীন কোরবানির ঈদ উদযাপন করলেন আমিরাতের প্রবাসীরা। বুধবার দেশটিতে উদযাপিত হয় ঈদুল আজহা।

এদিন ফজরের নামাজের আগে থেকেই মসজিদ ও ঈদগা প্রাঙ্গণে জড়ো হতে শুরু করেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। ফজরের নামাজের পর পবিত্র ঈদ উল আজহা উপলক্ষে ভোর ৬টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় দিনের প্রথম জামাত। বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার মুসলিম নাগরিকের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঈদের নামাজে শরিক হন প্রবাসী বাংলাদেশিরাও।

বাংলাদেশিদের জন্য প্রবাস জীবন অনেকটা ছন্দহীন। নিরানন্দ ও পরিশ্রমী জীবনযাপনের প্রবাস নামক ডায়েরির এক একটা পাতা যেন প্রবাসীদের জীবন গাঁথা। কর্মেডুবে থাকা ব্যস্ততার মাঝেও প্রবাসীদের ঈদের প্রধান আনন্দ দেশে আপনজনদের জন্য টাকা পাঠানো।

বেশিরভাগ প্রবাসী শ্রমিকদের কোরবানির দিন ব্যতীত ছুটি থাকে না। আবার অনেকের কোরবানির দিনও ডিউটি থাকে। ঈদের দিন ডিউটিতে থাকা অনেক প্রবাসীদের আক্ষেপ করে বলতে শোনা যায়-কী আর করব! বিদেশে আসছি টাকা উপার্জন করতে, আমাদের মতো হতভাগাদের ঈদ কী আবার? এ তো একটি কয়েদখানা।

এত কিছু সত্ত্বেও কোরবানির ঈদ পালন করতে পিছিয়ে নেই প্রবাসীরাও। কোরবানির ঈদের দিন বিভিন্ন আয়োজন করে থাকেন প্রবাসীরা। কয়েকজন মিলে অংশীদারের ভিত্তিতে ছাগল কিনে জবাই করেন। আবার কেউ কেউ একসঙ্গে মিলে গরু কিনে জবাই করেন। কেউবা আবার বাজার থেকে মাংস কিনে আনেন। প্রবাসে থাকা আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবদের দাওয়াত করেন। তারা মনে করেন, এই কর্মময় জীবনে একটা দিন হলেও মিলেমিশে একবেলা খাওয়া-দাওয়া ও গল্প তো করা গেল।

অনেক প্রবাসীদের দেখা যায় তাদের শুধু কোরবানির দিন ছুটি থাকে। ছুটির দিন ঈদগাহ থেকে এসে অনেকে ঘুমিয়ে পড়েন। ঘুম থেকে উঠে ছাগল জবাই করে খাওয়া-দাওয়া শেষ করে আবারও তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়েন, কেননা পরদিন আবার ডিউটিতে যেতে হবে।