Dhaka , Wednesday, 29 May 2024

যুদ্ধে নিষিদ্ধ মাইন ব্যবহার করছে ইউক্রেন : এইচআরডব্লিউ

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 09:20:32 am, Saturday, 1 July 2023
  • 53 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুদ্ধে নিষিদ্ধ ল্যান্ডমাইন ব্যবহার করেছে ইউক্রেন। মাইন বিস্ফোরণে একজনের মৃত্যু এবং একাধিক ব্যক্তির পা বিচ্ছিন্নসহ ১১ জন বেসামরিক লোকের প্রাণহানির ঘটনা রেকর্ড করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। সংস্থাটি উদ্বেগ জানানোর পাশাপাশি অবিলম্বে এটির ব্যবহার বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে।

সংস্থাটি বলেছে, রাশিয়ান সেনাদের আটকাতে বাছ-বিচারহীনভাবে বিপজ্জনক মাইন পুঁতেছিল ইউক্রেনীয় বাহিনী। এসব অস্ত্র ব্যবহারের নতুন প্রমাণও পাওয়া গেছে।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে আক্রমণ শুরু করার পর থেকে ইউক্রেনজুড়ে কমপক্ষে ১৩ ধরণের অ্যান্টিপারসোনেল মাইন ব্যবহার করেছে রুশ বাহিনী। এগুলো বেসামরিক মানুষকে হত্যা ও পঙ্গু করেছে।

এ ধরনের নিষিদ্ধ অস্ত্র ব্যবহার না করার আহ্বানের পাশাপাশি এসব ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের জবাবদিহির আওতায় আনতে কিয়েভের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে এইচআরডব্লিউ।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ-এর অস্ত্র পরিচালক স্টিভ গুজ বলেন, ‘একটি দ্রুত, স্বচ্ছ, এবং পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত এখন এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের ইউক্রেনীয়দের জন্য সুদূরপ্রসারী সুবিধা এনে দিতে পারে।’

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে জানুয়ারিতেও এই অভিযোগ এনেছিল এইচআরডব্লিউ। তখন বিষয়টি ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে, তদন্ত করার আশ্বাস দিয়েছিল তারা।

মার্কিনভিত্তিক সংগঠনটি বলছে, সাম্প্রতিক কয়েকটি প্রমাণ নিয়ে ইউক্রেন সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

মস্কো ১৯৯৭ সালের মাইন নিষিদ্ধ করার চুক্তিতে যোগ দেয়নি। তবে ২০০৫ সালে ইউক্রেন চুক্তিতে সই করে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

যুদ্ধে নিষিদ্ধ মাইন ব্যবহার করছে ইউক্রেন : এইচআরডব্লিউ

আপডেট টাইম : 09:20:32 am, Saturday, 1 July 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: যুদ্ধে নিষিদ্ধ ল্যান্ডমাইন ব্যবহার করেছে ইউক্রেন। মাইন বিস্ফোরণে একজনের মৃত্যু এবং একাধিক ব্যক্তির পা বিচ্ছিন্নসহ ১১ জন বেসামরিক লোকের প্রাণহানির ঘটনা রেকর্ড করেছে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। সংস্থাটি উদ্বেগ জানানোর পাশাপাশি অবিলম্বে এটির ব্যবহার বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে।

সংস্থাটি বলেছে, রাশিয়ান সেনাদের আটকাতে বাছ-বিচারহীনভাবে বিপজ্জনক মাইন পুঁতেছিল ইউক্রেনীয় বাহিনী। এসব অস্ত্র ব্যবহারের নতুন প্রমাণও পাওয়া গেছে।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে আক্রমণ শুরু করার পর থেকে ইউক্রেনজুড়ে কমপক্ষে ১৩ ধরণের অ্যান্টিপারসোনেল মাইন ব্যবহার করেছে রুশ বাহিনী। এগুলো বেসামরিক মানুষকে হত্যা ও পঙ্গু করেছে।

এ ধরনের নিষিদ্ধ অস্ত্র ব্যবহার না করার আহ্বানের পাশাপাশি এসব ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের জবাবদিহির আওতায় আনতে কিয়েভের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে এইচআরডব্লিউ।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ-এর অস্ত্র পরিচালক স্টিভ গুজ বলেন, ‘একটি দ্রুত, স্বচ্ছ, এবং পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত এখন এবং ভবিষ্যত প্রজন্মের ইউক্রেনীয়দের জন্য সুদূরপ্রসারী সুবিধা এনে দিতে পারে।’

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে জানুয়ারিতেও এই অভিযোগ এনেছিল এইচআরডব্লিউ। তখন বিষয়টি ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে, তদন্ত করার আশ্বাস দিয়েছিল তারা।

মার্কিনভিত্তিক সংগঠনটি বলছে, সাম্প্রতিক কয়েকটি প্রমাণ নিয়ে ইউক্রেন সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তারা কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

মস্কো ১৯৯৭ সালের মাইন নিষিদ্ধ করার চুক্তিতে যোগ দেয়নি। তবে ২০০৫ সালে ইউক্রেন চুক্তিতে সই করে।