Dhaka , Wednesday, 29 May 2024

দিল্লির বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি নেই

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:19:53 am, Sunday, 16 July 2023
  • 72 বার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রেকর্ড বৃষ্টির পর ভারতের রাজধানী দিল্লী ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করছে। হরিয়ানার হথনি কুন্ড ব্যারাজ থেকে পানি ছাড়ার ফলে যমুনায় পানির স্তর বেড়েছে। আবহাওয়া অফিস আগামী কয়েক দিনের মধ্যে রাজধানীতে আরও বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে।

আজও দিল্লির বেশ কিছু জায়গায় হালকা বৃষ্টি হয়েছে। আরও বৃষ্টিপাত হলে জলাবদ্ধ দিল্লির পানি নিষ্কাশন হতে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি সময় নিতে পারে। এর জলাবদ্ধতা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজধানীর মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া যমুনা নদীর পানির স্তর কিছুটা কমে ২০৭ দশমিক ৬৮ মিটারে নেমে এসেছে। তবে এরপরও দিল্লির বেশ কয়েকটি এলাকা প্লাবিত রয়ে গেছে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে যমুনার পানির স্তর ২০৮ দশমিক ৬৬ মিটারে পৌঁছেছিল। ১৯৭৮ সালের পর এটা ছিল যমুনার পানির স্তরের সর্বোচ্চ রেকর্ড।

মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, বন্যার পানি নিষ্কাশনের জন্য যমুনা ব্যারেজের পাঁচটি গেট খোলার কাজ চলছে।

দিল্লির বিভিন্ন স্থানে কর্তৃপক্ষ উদ্ধার কাজ অব্যাহত রেখেছে। যেসব জায়গায় বুক পর্যন্ত পানি জমে গেছে, সেখান থেকে লোকেদের নৌকায় করে উদ্ধার করা হচ্ছে। নিম্নাঞ্চলের কিছু বাসিন্দা ইতিমধ্যে খাদ্য সংকটের অভিযোগ করেছেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

দিল্লির বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি নেই

আপডেট টাইম : 08:19:53 am, Sunday, 16 July 2023

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রেকর্ড বৃষ্টির পর ভারতের রাজধানী দিল্লী ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করছে। হরিয়ানার হথনি কুন্ড ব্যারাজ থেকে পানি ছাড়ার ফলে যমুনায় পানির স্তর বেড়েছে। আবহাওয়া অফিস আগামী কয়েক দিনের মধ্যে রাজধানীতে আরও বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে।

আজও দিল্লির বেশ কিছু জায়গায় হালকা বৃষ্টি হয়েছে। আরও বৃষ্টিপাত হলে জলাবদ্ধ দিল্লির পানি নিষ্কাশন হতে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি সময় নিতে পারে। এর জলাবদ্ধতা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজধানীর মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া যমুনা নদীর পানির স্তর কিছুটা কমে ২০৭ দশমিক ৬৮ মিটারে নেমে এসেছে। তবে এরপরও দিল্লির বেশ কয়েকটি এলাকা প্লাবিত রয়ে গেছে।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে যমুনার পানির স্তর ২০৮ দশমিক ৬৬ মিটারে পৌঁছেছিল। ১৯৭৮ সালের পর এটা ছিল যমুনার পানির স্তরের সর্বোচ্চ রেকর্ড।

মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, বন্যার পানি নিষ্কাশনের জন্য যমুনা ব্যারেজের পাঁচটি গেট খোলার কাজ চলছে।

দিল্লির বিভিন্ন স্থানে কর্তৃপক্ষ উদ্ধার কাজ অব্যাহত রেখেছে। যেসব জায়গায় বুক পর্যন্ত পানি জমে গেছে, সেখান থেকে লোকেদের নৌকায় করে উদ্ধার করা হচ্ছে। নিম্নাঞ্চলের কিছু বাসিন্দা ইতিমধ্যে খাদ্য সংকটের অভিযোগ করেছেন।