Dhaka , Monday, 15 July 2024

ফ্রাঙ্কফুর্টে বাংলাদেশ দূতাবাসে প্রবাসীদের কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচি পালিত

  • Robiul Islam
  • আপডেট টাইম : 08:14:07 am, Monday, 17 July 2023
  • 129 বার

প্রবাস ডেস্ক: রাষ্ট্রদূত মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার (এনডিসি) সদয় নির্দেশক্রমে বাংলাদেশ দূতাবাস বার্লিনের উদ্যোগে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে প্রবাসী বাংলাদেশি ও অন্যান্য সেবা প্রার্থীদের জন্য তিন দিনব্যাপী এক কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

সেবা প্রদান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের কনস্যুলার টাস্ক ফোর্স সভাপতি ও মিনিস্টার কাজী মুহাম্মদ জাবেদ ইকবাল, দূতাবাসের প্রথম সচিব তৌহিদ ইমামসহ দূতাবাস টিমের সদস্যবৃন্দ একেএম রেজাউল করিম, রেহানা বেগম, মো. নাজমুল হুদা ও মো. শরীফ হোসেন।

তিন দিনব্যাপী এই কনস্যুলার সেবা কর্মসূচিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে বিপুল সাড়া ও উৎসাহ -উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যায়। ফ্রাঙ্কফুর্টসহ মিউনিখ, আখেন, অফেনবাখ, স্টুটগার্ট এবং অন্যান্য শহর থেকেও বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি দূতাবাসের এই প্রশংসনীয় উদ্যোগে সেবা গ্রহণ করেছেন।

অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে দূতাবাসের উক্ত কনস্যুলার টিম তিন দিনে প্রায় ৩০০ ই-পাসপোর্ট আবেদন ও বায়োমেট্রিক এনরোলমেন্ট গ্রহণ, ৭২টি ভিসা আবেদন গ্রহণ, ৭টি সত্যায়ন সার্টিফিকেট, ১০টি পাওয়ার অফ এটর্নি এনডোর্সমেন্ট, ৬টি বিবিধ সার্টিফিকেট প্রদানের কাজসহ অসংখ্য মানুষের বিবিধ কনস্যুলার বিষয়ক জিজ্ঞাসার সরাসরি উত্তর ও সমাধান প্রদানে সক্রিয় ও নিরবচ্ছিন্ন ভূমিকা পালন করেছে।

পাশাপাশি, সরকারের রেকর্ড পরিমাণ রাজস্ব আদায় নিশ্চিত হয়েছে। এছাড়াও, প্রবাসী বিশেষ ব্যক্তিত্ব, কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ও সম্ভাবনাময় তরুণ প্রজন্মের বাংলাদেশিদের সঙ্গে দূতাবাস কর্মকর্তারা মত বিনিময় করেন। এই যোগাযোগ দূতাবাসের সব কর্মসূচিকে আরও বেগবান করবে বলে সবাই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য যে, সকল ধরণের আবেদনের ক্ষেত্রে তাৎক্ষণিকভাবে কনস্যুলার ক্যাম্পেই বিনামূল্যে প্রিন্ট ও ফটোকপি সুবিধা প্রদান করা হয়। এছাড়াও ঘোষিত সময়ের বাইরেও দীর্ঘ রাত পর্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে সবাইকে সেবা প্রদান করা হয়, যা সেবা গ্রহীতা প্রবাসীদের বিশেষভাবে উপকৃত করেছে। নারী ও শিশুসহ পরিবার, প্রসূতি অথবা অসুস্থ সেবাপ্রার্থী বিশেষ ক্ষেত্রসমূহে সেবা প্রদান করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশিরা সকলে দূতাবাসের কনস্যুলার টিমের এইরূপ কর্মদক্ষতা ও সেবা প্রদান মানসিকতার আন্তরিক প্রশংসা জানিয়ে জার্মানির অন্যান্য শহরেও একই ধরণের কনস্যুলার সফরের অনুরোধ ও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

ফ্রাঙ্কফুর্টে বসবাসরত সব প্রবাসীদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসের এই নতুন মাত্রার কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচিকে সাধুবাদ জানিয়ে দূতাবাসের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা জানান হয়।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

জনপ্রিয় সংবাদ

ফ্রাঙ্কফুর্টে বাংলাদেশ দূতাবাসে প্রবাসীদের কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচি পালিত

আপডেট টাইম : 08:14:07 am, Monday, 17 July 2023

প্রবাস ডেস্ক: রাষ্ট্রদূত মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়ার (এনডিসি) সদয় নির্দেশক্রমে বাংলাদেশ দূতাবাস বার্লিনের উদ্যোগে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে প্রবাসী বাংলাদেশি ও অন্যান্য সেবা প্রার্থীদের জন্য তিন দিনব্যাপী এক কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

সেবা প্রদান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের কনস্যুলার টাস্ক ফোর্স সভাপতি ও মিনিস্টার কাজী মুহাম্মদ জাবেদ ইকবাল, দূতাবাসের প্রথম সচিব তৌহিদ ইমামসহ দূতাবাস টিমের সদস্যবৃন্দ একেএম রেজাউল করিম, রেহানা বেগম, মো. নাজমুল হুদা ও মো. শরীফ হোসেন।

তিন দিনব্যাপী এই কনস্যুলার সেবা কর্মসূচিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে বিপুল সাড়া ও উৎসাহ -উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যায়। ফ্রাঙ্কফুর্টসহ মিউনিখ, আখেন, অফেনবাখ, স্টুটগার্ট এবং অন্যান্য শহর থেকেও বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি দূতাবাসের এই প্রশংসনীয় উদ্যোগে সেবা গ্রহণ করেছেন।

অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে দূতাবাসের উক্ত কনস্যুলার টিম তিন দিনে প্রায় ৩০০ ই-পাসপোর্ট আবেদন ও বায়োমেট্রিক এনরোলমেন্ট গ্রহণ, ৭২টি ভিসা আবেদন গ্রহণ, ৭টি সত্যায়ন সার্টিফিকেট, ১০টি পাওয়ার অফ এটর্নি এনডোর্সমেন্ট, ৬টি বিবিধ সার্টিফিকেট প্রদানের কাজসহ অসংখ্য মানুষের বিবিধ কনস্যুলার বিষয়ক জিজ্ঞাসার সরাসরি উত্তর ও সমাধান প্রদানে সক্রিয় ও নিরবচ্ছিন্ন ভূমিকা পালন করেছে।

পাশাপাশি, সরকারের রেকর্ড পরিমাণ রাজস্ব আদায় নিশ্চিত হয়েছে। এছাড়াও, প্রবাসী বিশেষ ব্যক্তিত্ব, কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ ও সম্ভাবনাময় তরুণ প্রজন্মের বাংলাদেশিদের সঙ্গে দূতাবাস কর্মকর্তারা মত বিনিময় করেন। এই যোগাযোগ দূতাবাসের সব কর্মসূচিকে আরও বেগবান করবে বলে সবাই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য যে, সকল ধরণের আবেদনের ক্ষেত্রে তাৎক্ষণিকভাবে কনস্যুলার ক্যাম্পেই বিনামূল্যে প্রিন্ট ও ফটোকপি সুবিধা প্রদান করা হয়। এছাড়াও ঘোষিত সময়ের বাইরেও দীর্ঘ রাত পর্যন্ত আন্তরিকতার সঙ্গে সবাইকে সেবা প্রদান করা হয়, যা সেবা গ্রহীতা প্রবাসীদের বিশেষভাবে উপকৃত করেছে। নারী ও শিশুসহ পরিবার, প্রসূতি অথবা অসুস্থ সেবাপ্রার্থী বিশেষ ক্ষেত্রসমূহে সেবা প্রদান করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশিরা সকলে দূতাবাসের কনস্যুলার টিমের এইরূপ কর্মদক্ষতা ও সেবা প্রদান মানসিকতার আন্তরিক প্রশংসা জানিয়ে জার্মানির অন্যান্য শহরেও একই ধরণের কনস্যুলার সফরের অনুরোধ ও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

ফ্রাঙ্কফুর্টে বসবাসরত সব প্রবাসীদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসের এই নতুন মাত্রার কনস্যুলার সেবা প্রদান কর্মসূচিকে সাধুবাদ জানিয়ে দূতাবাসের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা জানান হয়।