Dhaka , Wednesday, 24 April 2024

আমাকে নিয়ে লোকের কেন এত সমস‌্যা : শ্রাবন্তী

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : 02:32:15 am, Sunday, 25 February 2024
  • 24 বার

বিনোদন ডেস্ক : ক্যারিয়ারজুড়েই নানা কারণে আলোচিত-বিতর্কিত ছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। বিশেষ করে প্রেম, বিয়ে, বিচ্ছেদ নিয়ে কম সংবাদের শিরোনাম হননি তিনি। তবুও শ্রাবন্তীর পথচলা কেউ থামাতে পারেনি, অভিনেত্রী হেঁটেছেন নিজের মতো করে।

সম্প্রতি একটি ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সমালোকদের উদ্দেশে বার্তা দিয়েছেন তিনি। যেখানে শ্রাবন্তী বলেছেন, সমালোচনা নিয়ে এখন আর মাথা ঘামান না।

অভিনেত্রীর ভাষায়— ‘সমালোচনা সবাইকে নিয়ে হয়। যার নাম আছে, তার বদনামও আছে। মানুষ হিসেবে একসময় এগুলো হলে খারাপ লাগত। মনে হতো, আমাকে নিয়েই কেন এমন হচ্ছে। কারো কারো স্বভাবই লোকজনকে নিয়ে সমালোচনা করা। এখন আর এসবে কিছু যায়-আসে না। কারণ আমি জানি, জীবন খুব অনিশ্চিত। আজ আছি, কাল নেই। বর্তমানে বাঁচি। ভবিষ‌্যতে ভগবান আছে, ভালোবাসার মানুষদের আশীর্বাদ আছে। সেটা ধরেই চলছি। কাজের প্রতি ভালোবাসা আর নিজের সততা আছে। সেটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

জীতু কমলের সঙ্গেও শ্রাবন্তীর সম্পর্ক নিয়ে কথা উঠেছিল অভিনেতার বিচ্ছেদের সময়। সেটা কি প্রভাবিত করেছিল? শ্রাবন্তী বলেন, ‘এটা খুবই হাস‌্যকর। আমি জানি না, আমাকে নিয়ে লোকের কেন এত সমস‌্যা। লন্ডনে আমরা দুটো সিনেমার শুটিং করেছিলাম, যেখানে জীতুর প্রাক্তন স্ত্রীও গিয়েছিল। তার সঙ্গেও আমি অনেক ঘুরেছি। প্রচুর খাওয়া-দাওয়া করেছি। যখন আমাকে নিয়ে এই কথা উঠেছিল, আমি খুব হেসেছিলাম। আমি জানি সত্যিটা কী! এরকম কোনো ব‌্যাপারই নয়। লোকে যা ভাবছে ভাবুক।’

১৯৯৭ সালে ‘মায়ার বাঁধন’ সিনেমা দিয়ে অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করেন শ্রাবন্তী। ফিরে তাকালে কী মনে হয়? অভিনেত্রী বলছেন, ‘অনেক কিছু দেখলাম, অনেক ধরনের চরিত্রের সাক্ষী রইলাম। এত ছোটবেলা থেকে এই ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি, একটা সময় সিরিয়ালও করেছি। অভিনয় আমার রন্ধ্রে রন্ধ্রে। অভিনয়ের মধ্যেই থাকতে চাই। প্রচুর স্ট্রাগলও করেছি। ১৬–১৭ বছরে মা হয়েছি। পরিবারের সাপোর্ট ছাড়া কিছুই করতে পারতাম না। কারণ তখন আমি তো নিজেই ছোট। মা-দিদি-বাবা সবার সাহায্য ছাড়া কিছুই পারতাম না, এখনও তাই। ওদের সমর্থন ছাড়া এতটা দূর এগোতে পারতাম না। এটার জন্য নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হয়।’

তৃতীয় স্বামী রোশান সিংয়ের সঙ্গে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়েবিচ্ছেদ হয়নি শ্রাবন্তীর। তবে দীর্ঘ দিন ধরে আলাদা থাকছেন তারা। মাঝে ব্যবসায়ী বন্ধু অভিরূপ চৌধুরীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। কিন্তু এ সম্পর্ক ভেঙে গেছে। এরপর ফিটনেস ট্রেইনারের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন বলে গুঞ্জন উঠেছিল। এ গুঞ্জনের ভাটা পড়া পর শ্রাবন্তীর নাম জড়ায় পরিচালক শুভ্রজিতের সঙ্গে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

আমাকে নিয়ে লোকের কেন এত সমস‌্যা : শ্রাবন্তী

আপডেট টাইম : 02:32:15 am, Sunday, 25 February 2024

বিনোদন ডেস্ক : ক্যারিয়ারজুড়েই নানা কারণে আলোচিত-বিতর্কিত ছিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। বিশেষ করে প্রেম, বিয়ে, বিচ্ছেদ নিয়ে কম সংবাদের শিরোনাম হননি তিনি। তবুও শ্রাবন্তীর পথচলা কেউ থামাতে পারেনি, অভিনেত্রী হেঁটেছেন নিজের মতো করে।

সম্প্রতি একটি ভারতীয় গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সমালোকদের উদ্দেশে বার্তা দিয়েছেন তিনি। যেখানে শ্রাবন্তী বলেছেন, সমালোচনা নিয়ে এখন আর মাথা ঘামান না।

অভিনেত্রীর ভাষায়— ‘সমালোচনা সবাইকে নিয়ে হয়। যার নাম আছে, তার বদনামও আছে। মানুষ হিসেবে একসময় এগুলো হলে খারাপ লাগত। মনে হতো, আমাকে নিয়েই কেন এমন হচ্ছে। কারো কারো স্বভাবই লোকজনকে নিয়ে সমালোচনা করা। এখন আর এসবে কিছু যায়-আসে না। কারণ আমি জানি, জীবন খুব অনিশ্চিত। আজ আছি, কাল নেই। বর্তমানে বাঁচি। ভবিষ‌্যতে ভগবান আছে, ভালোবাসার মানুষদের আশীর্বাদ আছে। সেটা ধরেই চলছি। কাজের প্রতি ভালোবাসা আর নিজের সততা আছে। সেটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।’

জীতু কমলের সঙ্গেও শ্রাবন্তীর সম্পর্ক নিয়ে কথা উঠেছিল অভিনেতার বিচ্ছেদের সময়। সেটা কি প্রভাবিত করেছিল? শ্রাবন্তী বলেন, ‘এটা খুবই হাস‌্যকর। আমি জানি না, আমাকে নিয়ে লোকের কেন এত সমস‌্যা। লন্ডনে আমরা দুটো সিনেমার শুটিং করেছিলাম, যেখানে জীতুর প্রাক্তন স্ত্রীও গিয়েছিল। তার সঙ্গেও আমি অনেক ঘুরেছি। প্রচুর খাওয়া-দাওয়া করেছি। যখন আমাকে নিয়ে এই কথা উঠেছিল, আমি খুব হেসেছিলাম। আমি জানি সত্যিটা কী! এরকম কোনো ব‌্যাপারই নয়। লোকে যা ভাবছে ভাবুক।’

১৯৯৭ সালে ‘মায়ার বাঁধন’ সিনেমা দিয়ে অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করেন শ্রাবন্তী। ফিরে তাকালে কী মনে হয়? অভিনেত্রী বলছেন, ‘অনেক কিছু দেখলাম, অনেক ধরনের চরিত্রের সাক্ষী রইলাম। এত ছোটবেলা থেকে এই ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি, একটা সময় সিরিয়ালও করেছি। অভিনয় আমার রন্ধ্রে রন্ধ্রে। অভিনয়ের মধ্যেই থাকতে চাই। প্রচুর স্ট্রাগলও করেছি। ১৬–১৭ বছরে মা হয়েছি। পরিবারের সাপোর্ট ছাড়া কিছুই করতে পারতাম না। কারণ তখন আমি তো নিজেই ছোট। মা-দিদি-বাবা সবার সাহায্য ছাড়া কিছুই পারতাম না, এখনও তাই। ওদের সমর্থন ছাড়া এতটা দূর এগোতে পারতাম না। এটার জন্য নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হয়।’

তৃতীয় স্বামী রোশান সিংয়ের সঙ্গে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়েবিচ্ছেদ হয়নি শ্রাবন্তীর। তবে দীর্ঘ দিন ধরে আলাদা থাকছেন তারা। মাঝে ব্যবসায়ী বন্ধু অভিরূপ চৌধুরীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। কিন্তু এ সম্পর্ক ভেঙে গেছে। এরপর ফিটনেস ট্রেইনারের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন বলে গুঞ্জন উঠেছিল। এ গুঞ্জনের ভাটা পড়া পর শ্রাবন্তীর নাম জড়ায় পরিচালক শুভ্রজিতের সঙ্গে।