Dhaka , Friday, 24 May 2024

মালদ্বীপে মুজিবনগর দিবস উদযাপন

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : 02:18:26 am, Friday, 19 April 2024
  • 17 বার

বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে মালদ্বীপে যথাযোগ্য মর্যাদায় ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক ‘মুজিবনগর দিবস’ পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে মালদ্বীপের বাংলাদেশ হাইকমিশনের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার অ্যাডমিরাল (অবঃ) এস এম আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বানী পাঠ করেন যথাক্রমে মিশনের কাউন্সেলর (শ্রম) ও দূতাবাস প্রধান মো: সোহেল পারভেজ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা শিরিন ফারজানা। এরপর মুজিবনগর ও মুক্তিযুদ্ধের উপর নির্মিত একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাস জানার জন্য আহ্বান জানান।

হাইকমিশনার আরও বলেন, মুজিব নগর সরকারের মাধ্যমেই বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠন করে যা মুক্তিযুদ্ধকে তরান্বিত করেছিল ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে যোগাযোগ এবং তাদের সমর্থন আদয়ে ব্যাপক ভূমিকা পালন করেছিল। এছাড়াও তিনি সকলকে ঐতিহাসিক মুজিবনগর ভ্রমণের জন্য অনুরোধ জানান। পরিশেষে তিনি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য সবাই কে একযোগে কাজ করার জন্য অনুরোধ জানান।

অনুষ্ঠানে হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীগন ও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Robiul Islam

মালদ্বীপে মুজিবনগর দিবস উদযাপন

আপডেট টাইম : 02:18:26 am, Friday, 19 April 2024

বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে মালদ্বীপে যথাযোগ্য মর্যাদায় ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক ‘মুজিবনগর দিবস’ পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে মালদ্বীপের বাংলাদেশ হাইকমিশনের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার অ্যাডমিরাল (অবঃ) এস এম আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বানী পাঠ করেন যথাক্রমে মিশনের কাউন্সেলর (শ্রম) ও দূতাবাস প্রধান মো: সোহেল পারভেজ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা শিরিন ফারজানা। এরপর মুজিবনগর ও মুক্তিযুদ্ধের উপর নির্মিত একটি ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ইতিহাস জানার জন্য আহ্বান জানান।

হাইকমিশনার আরও বলেন, মুজিব নগর সরকারের মাধ্যমেই বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠন করে যা মুক্তিযুদ্ধকে তরান্বিত করেছিল ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে যোগাযোগ এবং তাদের সমর্থন আদয়ে ব্যাপক ভূমিকা পালন করেছিল। এছাড়াও তিনি সকলকে ঐতিহাসিক মুজিবনগর ভ্রমণের জন্য অনুরোধ জানান। পরিশেষে তিনি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য সবাই কে একযোগে কাজ করার জন্য অনুরোধ জানান।

অনুষ্ঠানে হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীগন ও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।